মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও আল কায়েদার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে এক বাংলাদেশিসহ পাঁচজন মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার হয়েছেন।

গত ১৭ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বরের মধ্যে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে শনিবার দেশটির পুলিশ বিভাগের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রধান খালিদ আবু বকর বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে মালয়েশিয়ার একজন ও চার বিদেশি নাগরিক রয়েছেন।

“এদের মধ্যে ৪৪ বছর বয়সী ওই ইউরোপীয় রয়েছেন, যিনি পেনাং প্রদেশে অস্থায়ী শিক্ষক হিসেবে কাজ করছিলেন। তার সঙ্গে আল কায়েদার সম্পর্ক আছে।”

আফগানিস্তান ও বসনিয়ায় জঙ্গি কার্যক্রমেও তিনি অংশ নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার পুলিশ।

খালিদ বলেন, “বাকিদের মধ্যে ৩১ বছর বয়সী এক ইন্দোনেশীয় পুরুষ, এক মালয়েশীয় ও এক বাংলাদেশি আইএসের একটি সেলের সঙ্গে জড়িত। বিদেশে জঙ্গি কার্যক্রমে অংশ নিতে স্বেচ্ছাসেবক সংগ্রহের দায়িত্বে ছিলেন এরা।

ওই সেলটির নেতা ইন্দোনেশীয় ওই নাগরিক ২০১৪ সাল থেকে ফেইসবুকে আইএস নেতা আবু বকর আল বাগদাদির প্রতি আনুগত্য দেখিয়ে আসছেন বলে জানান তিনি।

মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রধান বলেন, “তিনি ও মালয়েশীয়- দুজনে মিলে মালয়েশিয়া ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার অন্যান্য দেশ থেকে সিরিয়াভিত্তিক আইএসের জন্য সদস্য সংগ্রহের কাজ করতেন।”

রাশিয়ার স্বার্থসংশ্লিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে আইএসের ১০ জঙ্গি থাইল্যান্ডে প্রবেশ করেছে বলে শুক্রবার গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের পর মালয়েশিয়ায় উচ্চ সতর্কাবস্থা জারি করা হয়।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন