পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুর সদর উপজেলার জুজখোলা মিরুয়া গ্রামে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে ‘গলাটিপে হত্যার’ অভিযোগ উঠেছে। নিহত গৃহবধূর অণিমা মিরবর (২৮) পিরোজপুর সদর উপজেলার জুজখোলা মিরুয়া গ্রামের উত্তম মীরবরের স্ত্রী। তার সাত বছর বয়সী একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। মঙ্গলবার সকালে কোনো এক সময় অণিমাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

গ্রামপুলিশ শহিদুল ইসলাম দুলাল জানান, স্থানীয়রা অণিমার মৃত্যুর খবর পুলিশকে জানালে তার লাশ উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এসময় মৃতের শ্বশুরবাড়ির লোকজন কেউ ছিল না।

অণিমার বাবা অনন্ত বাছারের অভিযোগ, দশ বছরের দাম্পত্য জীবনে উত্তম নানাভাবে অণিমার উপর অত্যাচার-নিপীড়ন করত। তারই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার সকালে তাকে ‘গলাটিপে হত্যা’ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, ‘মেয়ের ভালোর জন্য’ যৌতুক হিসেবে একাধিকবার নগদ অর্থও দেওয়া হয়েছিল উত্তমকে।

পিরোজপুর সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. ননী গোপাল রায় বলেন, ‘মৃতের গলায় ও মুখে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে।’

পিরোজপুর সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বিপ্লব জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মৃতের শাশুড়ি কল্পনা মিরবরকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন