মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার(৫০) এর দুটি পা কেটে ফেলা হয়েছে। আহত ইদ্রিস তালুকদার উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি উপজেলার তুষখালী ইউনিয়নে হাবিব হত্যা মামলায় জামিনপ্রাপ্ত আসামী ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদারকে প্রতিপক্ষরা হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে দুই পা ভেঙে দেয়। শনিবার তাকে বাঁচাতে চিকিৎসকরা তার দুটি পা কেটে ফেলতে বাধ্য হয়েছে। অপারেশনের পর তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ ইউনিট (আইসিইউ) এ সহযোগী অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফার তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসাধীন রয়েছেন । বর্তমানে ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন।

ধানীসাফার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক অপারেশন করে তার পা দুটি কেটে ফেলেন। তিনি আরও জানান, পা দুটি কেটে ফেলার পরেও তার জীবনের শঙ্কা কাটছে না।

উল্লেখ্য, উপজেলার ২নম্বর ধানীসাফা ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার গত মঙ্গলবার বিকেলে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফেরার পথে তুষখালী লঞ্চঘাট সংলগ্ন বাস স্ট্যান্ডে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষরা হামলা চালায়। এসময় হামলাকারীরা হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে তার দুই পা ও ডান হাত ভেঙে গুড়িয়ে দেয় । এছাড়া তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাইনিজ কুঠার দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর যখম কওে প্রতিপক্ষরা। পরে তাকে মৃত ভেবে স্থানীয় শহিদুল তালুকদারের বাড়ির পিছনে ফেলে রেখে যায় পালিয়ে যায় হামলাকারীরা।
এ হামলার ঘটনায় আহত ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদারের স্ত্রী সেলিনা বেগম বাদী হয়ে ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহীন তালুকদারসহ ২৮ জনকে আসামী করে গত বুধবার রাতে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ।
গত ৩ সেপ্টেম্বর মঠবাড়িয়া উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের আলোচিত হাবিব তালুকদার নিখোঁজের দু’দিন পর তার লাশ তুষখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বাথরুমের পাশে পাওয়া য়ায়। এঘটনায় নিহতের কলেজ পড়–য়া ছেলে হাফিজুর রহমানের মঠবাড়িয়া থানায় দায়ের করা হত্যা মামলায় ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার এজাহারভুক্ত ২নম্বর আসামী করা হয়। ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার উচ্চ আদালতে জামিনের পর বর্তমানে নিম্ম আদালত থেকেও জামিনে রয়েছেন। বর্তমানে ওই হত্যা মামলাটি সিআইডি’র তদন্তাধীন রয়েছে।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন