আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিল পদের প্রার্থীদের জন্যে নির্ধারিত প্রতীকসমূহ খুব অপমানজনক বলে মন্তব্য করেছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

এই সমস্ত প্রতীক বরাদ্দের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন তাদের সনাতনী চিন্তার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে।

মঙ্গলবার (০৮ ডিসেম্বর) সকালে মহিলা বিষয়ক অধিদফতরে আয়োজিত আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে ৠালি পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, নারী আজ চুড়ি পরে গৃহের অভ্যন্তরে বন্দি নয়। নারীরা আজ বিমান চালাচ্ছে, ট্রেন চালাচ্ছে, রাইফেল, স্টেনগান চালাচ্ছে। নারীর প্রতীক শুধুমাত্র চুড়ি, পাটাপুতা ও হাড়ি পাতিল নয়। নারী এখন সব কিছুর প্রতীক। নারীর প্রার্থীদের প্রতীক চুড়ি না হয়ে বিমান হলো না কেন?

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, অতীতেও নারী প্রার্থীদের এই রকমের বিব্রতকর প্রতীক নির্বাচন কমিশন বরাদ্দ প্রদান করেছে যার প্রতিবাদও হয়েছে। তারপরও নির্বাচন কমিশনের এই রকমের দায়িত্বহীনতা দুঃখজনক।

প্রতিমন্ত্রী একজন নারীকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগপ্রদানের জন্য আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কমিশনার নারী হলে এই সমস্ত স্পর্শকাতর বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে পারবে।

সমাবেশে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি বলেন, নারীকে সাহসী হতে হবে, কোনো ভাবে পিছপা হওয়া যাবেনা। তিনি নারী নির্যাতন প্রতিরোধে নারীর পাশাপাশি পুরুষের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। ল্যালিটি রাজধানীর ইস্কাটনের মহিলা ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে জাতীয় যাদুঘরের সামনে এসে শেষ হয়।

র‌্যালিতে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন। এছাড়া ৠলিতে উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের পরিচালক এবিএম জাকির হোসেন।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন