মঠবাড়িয়ায় হোমিও চিকিৎসকের কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবির মামালায় যুবলীগ নেতা বাবু শরীফসহ তিন জনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। আজ বৃহস্পতিবার আসামীরা আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। মামলার প্রধান আসামী বাবু শরীফ মঠবাড়িয়ার সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত ৭ অক্টোবর সন্ধ্যায় মঠবাড়িয়া পৌর শহরের কে এম লতিফ ইনষ্টিটিউশনের সামনে হোমিও চিকিৎসক মাইনুল ইসলামের কাছে যুবলীগ নেতা বাবু শরীফ দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করায় এলোপাথারি ভাবে কুপিয়ে চিকিৎসক মাইনুলকে গুরুতর আহত করে। এসময় ওই চিকিৎসকের চেম্বারের যাবতীয় মালামাল ভাংচুর করে।

এ ঘটনায় ওই চিকিৎসকের ভাই মো.আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে যুবলীগ নেতা বাবু শরীফসহ আটজনকে আসামী করে ঘটনার দিন রাতে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আজ বৃহস্পতিবার যুবলীগ নেতা বাবু শরীফসহ তিন জন আসামী মঠবাড়িয়া জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন