ব্রেকিং নিউজ
Home - এক্সক্লুসিভ - সর্বজনীন পেনশন: কীভাবে আবেদন করবেন

সর্বজনীন পেনশন: কীভাবে আবেদন করবেন

আজকের মঠবাড়িয়া অনলাইন ডেস্ক :

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভূক্তির জন্য ব্যক্তিকে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এজন্য ইতোমধ্যে ‘ইউপেনশন’ (https://www.upension.gov.bd/) নামে ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে। এ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) থেকেই যে কেউ পেনশন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্তর সুযোগ তৈরি হয়েছে।

যেসব কাগজপত্র লাগবে

পেনশনব্যবস্থার আওতায় আসতে গেলে একজন আবেদনকারীর অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) থাকতে হবে। প্রবাসী বাংলাদেশি যাঁদের এনআইডি নেই, তাঁরা পাসপোর্টের ভিত্তিতে এই পেনশন কর্মসূচিতে যোগ দিতে পারবেন। তবে দ্রুততম সময়ের মধ্যে এনআইডি সংগ্রহ করে পেনশন কর্তৃপক্ষের কাছে তা জমা দিতে হবে।

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হতে গেলে ইউপেনশন ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধনের ওয়েবসাইটে লাল মার্ক করে লেখা রয়েছে ‘ভুল তথ্য দিয়ে আবেদন করলে সেই আবেদন বাতিল হবে এবং জমাকৃত অর্থ ফেরতযোগ্য হবে না’।

পেনশন পেতে হলে নিরবিচ্ছিন্ন অনন্ত ১০ বছর চাঁদা দিতে হবে। স্কিম ভেদে চাঁদা জমার হার ও পেনশন পাওয়ার হারে ভিন্নতা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে মাসে সর্বোচ্চ ১০ হাজার থেকে সর্বনিম্ন এক হাজার টাকা চাঁদা প্রদান করা যাবে। অবশ্য সমতা শ্রেণির এক হাজার টাকা চাঁদার মধ্যে ব্যক্তি দেবেন ৫০০ টাকা, আরও ৫০০ টাকা সরকার অনুদান হিসেবে দেবে।

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে ব্যক্তি যত সময় ধরে চাঁদা দেবেন, তুলনামূলকভাবে তত বেশি হারে মাসিক পেনশন মিলবে। এক্ষেত্রে স্কিম ভেদে মাসিক সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬৫৫ টাকা এবং সর্বনিম্ন ১ হাজার ৫৩০ টাকা পেনশন পাওয়া যাবে।

সরকার ঘোষিত চার ধরনের পেনশন কর্মসূচির মধ্যে প্রবাস ও প্রগতি স্কিমে তিন ধরনের, সুরক্ষা স্কিমে চার ধরনের আর দারিদ্র্যসীমার নিচে অবস্থানকারী নাগরিকদের সমতা স্কিমে এক ধরনের চাঁদা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রত্যেক স্কিমেই নির্ধারিত সময়ে প্রদেয় নির্ধারিত চাঁদার বিপরীতে সমান পরিমাণ পেনশন মিলবে। অর্থাৎ প্রবাস, প্রগতি ও সুরক্ষা স্কিমে কেউ ৪২ বছর ধরে ৫ হাজার টাকা করে চাঁদা দিলে তাদের সকলেরই পেনশন হবে মাসে ১ লাখ ৭২ হাজার ৩২৭ টাকা।

প্রবাস স্কিমে মাসে ১০ হাজার, সাড়ে ৭ হাজার ও ৫ হাজার করে চাঁদা দেওয়া যাবে। প্রবাস কর্মসূচিতে ১৮ বছর বয়সী একজন প্রবাসী যদি মাসে ১০ হাজার টাকা করে জমা দেন, তবে ৪২ বছর পর (নিজের বয়স ৬০ বছর পূর্ণ হলে) তিনি মাসে পাবেন ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬৫৫ টাকা করে। প্রবাসী একই হারে ১০ বছর চাঁদা দিলে মাসে পেনশন পাবেন ১৫ হাজার ৩০২ টাকা।

প্রবাস কর্মসূচিতে ১৮ বছর বয়সী একজন প্রবাসী যদি মাসে ৫ হাজার টাকা করে জমা দেন, তবে ৪২ বছর পর (নিজের বয়স ৬০ বছর পূর্ণ হলে) তিনি মাসে পাবেন ১ লাখ ৭২ হাজার ৩২৭ টাকা করে। প্রবাসী একই হারে ১০ বছর চাঁদা দিলে মাসে পেনশন পাবেন ৭ হাজার ৬৫১ টাকা।

প্রগতি স্কিমের (বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা) আওতাভুক্ত ১৮ বছর বয়সী বেসরকারি কোনও চাকরিজীবী যদি মাসে ৫ হাজার টাকা করে জমা দেন, তাহলে তিনি ৪২ বছর পর মাসে পাবেন ১ লাখ ৭২ হাজার ৩২৭ টাকা করে। একই হারে ১০ বছর চাঁদা দিলে মাসে পেনশন পাবেন ৭ হাজার ৬৫১ টাকা।

সুরক্ষা স্কিমের (স্বকর্মে নিয়োজিত নাগরিক) আওতায়ও ১৮ বছর বয়সীরা কেউ যদি ৫ হাজার টাকা করে মাসে জমা দিয়ে পেনশনে যুক্ত হন, তাহলে ৪২ বছর শেষে তিনিও মাসে ১ লাখ ৭২ হাজার ৩২৭ টাকা করে পাবেন। একই হারে ১০ বছর চাঁদা দিলে মাসে পেনশন পাবেন ৭ হাজার ৬৫১ টাকা।

তবে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য নির্ধারিত সমতা পেনশন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীদের মাসিক চাঁদার অর্ধেক দেবে সরকার। সমতা কর্মসূচিতে একজন অংশগ্রহণকারীকে মাসে দিতে হবে ৫০০ টাকা, এর বিপরীতে সরকার দেবে আরও ৫০০ টাকা। এভাবে কেউ যদি ৪২ বছর ১ হাজার টাকা করে জমা দেন, তাহলে মেয়াদ শেষে তিনি মাসে পেনশন পাবেন ৩৪ হাজার ৪৬৫ টাকা করে। একই হারে ১০ বছর চাঁদা দিলে মাসে পেনশন পাবেন ১ হাজার ৫৩০ টাকা।

বিধিমালায় বলা হয়েছে, পেনশনের চাঁদা জমা দিতে হবে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত ব্যাংক হিসাবে। আর জমা দেওয়া যাবে অনলাইন ব্যাংক, ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ড, মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা (এমএফএস) প্রতিষ্ঠান এবং তফসিলি ব্যাংকের যেকোনো শাখার মাধ্যমে।

তথ্য সূত্র – কালের কণ্ঠ ও বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

x

Check Also

পিরোজপুরের স্বরুপকাঠিতে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানের দলবলের হামলায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নিহত

পিরোজপুর প্রতিনিধি 🔴 পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি উপপজেলার আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নে পূর্ব বিরোধ ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র ...