মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার বলেশ্বর নদ থেকে বিমল দর্জি(৫৫)নামে এক বৃদ্ধ জেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে বলেশ্বর নদের তীরে জ্বালানী কাঠ সংগ্রহে গিয়ে সে নদে ডুবে ভেসে যায়। পড়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেশ্বর নদে তার ভাসমান লাশ পাওয়া যায়।

নিহত ওই জেলে মঠবাড়িয়া উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের কচুবাড়িয়া জেলে পল্লীর মৃত গোপাল দর্জির ছেলে। সে চার সন্তানের জনক।
নিহত জেলে বিমল দর্জির ছোট ছেলে বিটুল দর্জি জানান, তার বাবা বৃহস্পতিবার দুপুরে জ্বালানী কাঠ সংগ্রহের জন্য বলেশ্বর নদের তীরের ছৈলাগাছ হতে জ্বালানী কাঠ সংগ্রহ করছিল। এসময় সে নদের খাড়িতে পড়ে ডুবে গিয়ে প্রবল স্্েরাতে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে নদীতে খোঁজাখুজি করে তাকে না পাওয়ায় এলাকায় মাইকিং করে সকলকে জানানো হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেশ্বর নদে মাছধরারত জেলেরা লাশ ভাসতে দেখে এলাকাবাসিকে খবর দেয়। এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে আমার বাবার লাশ সনাক্ত করি। থানায় খবর দিলে পুলিশ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তার ভাসমান লাশ উদ্ধার করে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কে.এম তারিকুল ইসলাম লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পারিবারের সদস্য জানিয়েছেন বৃদ্ধ বিমল দর্জি মৃগীবায়ূ রোগে আক্রান্ত ছিলেন। ধারনা করা হচ্ছে জ্বালানীকাঠ সংগ্রহের সময় সে মৃগীরোগে আক্রান্ত হয়ে গাছথে বলেশ্বর নদে পড়ে গিয়ে স্রোতে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ হয়। লাশ উদ্ধার করে আজ শনিবার ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন