পিরোজপুর প্রতিনিধি>>
অসম্প্রদায়ীক, সন্ত্রাস মুক্ত, সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনের জন্য আবারো নৌকায় ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক শ.ম. রেজাউল করিম। তিনি বলেন, যে লক্ষ নিয়ে জাতির জনক স্বাধীনতার ডাক দিয়ে জাতিকে একটি রাষ্ট্র উপহার দিয়েছিলেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার তিন বছরের মাথায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে সে লক্ষকে ভুলুন্ঠিত করেছিল জিয়াউর রহমান। তারা স্বাধীনতা বিরোধীদের প্রতিষ্ঠা করে দেশকে পাকি¯া—নী ধারায় নিয়ে যেতে চেয়েছিল। জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২১ বছর আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় এসে বাঙালী জাতির কলঙ্ক মোছন করে যুদ্ধাপরাধীদৈর বিচার করেছেন। জাতির জনকের হত্যার বিচার করতে সক্ষম হয়েছেন। জোট সরকারের আমলের সেই ভিবিষিকাময় দিনগুলো স্মরন করে কাজ করবেন। শেখ হাসিনা জাতির জনকের কন্যা তিনি কারো কোন প্রকার হুমকির কাছে মাথা নত করেন না। অসাম্প্রদায়ীক সন্ত্রাস মুক্ত রাষ্ট্র চাইলে, পদ্মা সেতুর সফল সমাপ্তি চাইলে, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতাসহ বিভিন্ন প্রকার ভাতা চালু রাখতে চাইলে, দোর গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা চাইলে , সামাজিক সুরক্ষার কর্মসুচি সমুহের বাস্তবায়ন চাইলে, সন্তানদের লেখাপড়ায় বিনা মূল্যে বই, উপবৃত্তি চালু রাখতে চাইলে অবশ্যই নৌকায় ভোট দিতে হবে। বুধবার দুপুরে স্বারূপকাঠি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের মাঠে অনুষ্ঠিত দূর্গাপূজা উপলক্ষে হিন্দু ধর্মলম্বী পূজারীদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এসব কথা বলেন শ.ম. রেজাউল করিম। তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় গেলে দেশের উন্নয়ন হয়। বিএনপি করে লুটপাট। মানুষকে বোঝাতে হবে, জাতির জনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে তুলেছেন। উন্নয়নের এ ধারা অব্যহত রাখতে শেখ হাসিনাকে আবারো রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে হবে। দুর্নীতি ও স্বাধীনতা বিরোধীদের রুখতে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নাই। তাই আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামীলীগকে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব দিতে হবে। শেখ হাসিনাকে সৃষ্টিকর্তা যেন সুস্থ রাখেন এজন্য সকলকে প্রার্থনা করনার আহ্বান জানান। উপজেলা পূজা পরিষদের সাবেক সম্পাদক উত্তম কুমার মিস্ত্রির সভাপতিত্বে আরো বক্তৃতা দেন সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. জাহীদ হোসেন, হিন্দু কল্যান ট্রাষ্টের ট্রাষ্টি বিপুল বিহারী হালদার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম মুইদুল ইসলাম, নাজিরপুরের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ আব্দুল লতিফ, কন্দ্রিয় কৃষকলীগের সদস্য মো. আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্না, আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যক্ষ মো. বেলায়েত হোসেন, কাজী সাইফুদ্দিন তৈমুর, নাজিরপুর উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুখরঞ্জন বেপারী, অ্যাডভোকেট কমল আচার্য্য, কাজী শাহরিয়ার সোহাগ প্রমুখ। সব শেষে সকল পূজা মন্ডপের জন্য তার ব্যাক্তিগত তহবীল থেকে অনুদান প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি দিনভর উপজেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন।
খালিদ আবু
পিরোজপুর
০১৭১৬-৪৩৩৯২৯

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন