সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক >>
ঈদুল আজহা উপলক্ষে সম্প্রতি মঠবাড়িয়ার কৃতি নাট্য নির্মাতা ও পরিচালক মনন আসাদ নির্মাণ করেছেন বিশেষ নাটক সোনার বালা। পারিবারিক বন্ধন ও সামাজিক সচেতনতার মূল্যায়ন ও মূল্যবোধের অবক্ষয়ের নির্মল উপলব্ধির টিভি নাটক সোনার বালা। বর্তমান বিশ্বায়নের এ যুগে সারা বিশ্ব হাতের মঠোয় থাকলেও আত্মার আত্মীয়, পরমাত্মীয় এমনকি রক্তের সম্পর্ক গুলোও দূর পরবাসে নিভৃতে গুমরে কাঁদে। এমনকি একই পরিবারের বা একই পিতার ঔরসজাত সন্তানরাও অপরিচিত ও নিজেদের সম্পর্কের ব্যাপারে অজ্ঞাত, এরকম একটি পরিবারের রক্তের সম্পর্কের অজ্ঞাত বন্ধন ও দূরত্বের পটভূমি নিয়ে এগিয়েছে সোনার বালা নাটকের গল্প। আমাদের সামাজিক আর জীবনবোধের খন্ডিত গল্পগাঁথা সোনার বালা।

পারিবারিক সম্পর্কের বন্ধন বিলীন ও অস্তিত্বহীনতারর কারনে সৃষ্ট একই পিতার ঔরসজাত বোনের প্রতি আগন্তুক একমাত্র ভাইয়ের ভালবাসা ও ত্যাগসুখ স্থাপনের অবিশ্বাস্য নিদর্শনের গল্প “সোনার বালা”।

বর্তমান সমাজব্যবস্থায় আমাদের সামাজিক সম্প্রীতি ও পারিবারিক বন্ধনের দূরত্ব গুলো এমন পর্যায়ে দাড়িয়ছে যে, নিজেদের দু’চারটা পরিবার ও আত্মীয় স্বজন ছাড়া অন্যান্য আত্মীয় পরিজন ও বংশধরদের সম্পর্কে তেমন কোন জানাশোনা তো নেইই জানার কোন আগ্রহও নেই। মেহমানদারি, বেড়ানো, পারিবারিক ও সামাজিক আচার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ ও যাতায়াত পারিবারিক আত্মীয়তা ও সামাজিক বন্ধনকে সুদৃঢ় করে। কিন্তু এই সমাজ ব্যবস্হায় আমরা এসব সম্পর্ক কে উটকো ঝামেলা ও বিরক্তিকর বোঝা মনে করে শুধুমাত্র নিজেকে নিয়ে ব্যস্ততা ও একঘরে হয়ে যাচ্ছি। আর বেড়ানো বা ঘুরতে যাওয়া বলতে কোন রেস্টুরেন্ট, রিসোর্ট বা কোন হোটেল-মোটেলে গিয়ে রুম রিজার্ভ করে সময় কাটানোকে বুঝি। পরমাত্মীয়দের বাড়ীতে বেড়ানোটা এখন সবার কাছে উটকো ও বাড়তি ঝামেলা মনে হয়।

এমনকি আমরা নিজেদের পরিবার ও পূ্র্বপুরুষদের ইতিহাস,ঐতিহ্য ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে অবগত তো নইই বরং জানতেও অনাগ্রহী। এই বাস্তবতার কাহিনী বিধৃত হয়েছে সোনার বালা গল্পে। সেই চলমান জীবনের গল্পের চিত্রনাট্য সোনার বালা।

নাকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন, মাধবী: নাদিয়া আহমেদ, নবীনূর: রওনক হাসান,জয়া : সুষমা সরকার,মা: লিনা ফেরদৌসি, বাবা: আহসানুল হক মিনু, শুভ: সঞ্জয় রাজ,অন্যান্য চরিত্রে আছেন. সুমন আচার্য্য, হুমায়ুন কাবেরী, হিরা সাহ ও হারিস।
ফাল্গুনী মুখার্জী নিবেদিত ও সঞ্জয় দত্তের রচনায় নাটকটির চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন মনন আসাদ।
প্রযোজনা : অরোরা এ্যাড মিডিয়া।

প্রচারিত হবে channel 9 – এ ঈদের ষষ্ঠ দিন রাত ০৮:৪৫ মিনিট – এ।

পরিচালক মনন আসাদ

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন