মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় নবম শ্রেণী পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার পথে অনৈতিক প্রস্তাব ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগে রত্তন আলী বেপারী(৫০)নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
ভূক্তভোগি ওই মাদ্রসা ছাত্রীর মা বাদি হয়ে তার মাদ্রাসা পড়ুয়া মেয়েকে যৌননিপীড়নের অভিযোগ এনে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ বুধবার দিনগত রাতে অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত রত্তন আলী মঠবাড়িয়া উপজেলার দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের মৃত ছাদের আলী বেপারীর ছেলে।

থানা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের মৃত ছাদেন আলীর ছেলে রত্তন আলী একই গ্রামের মাদ্রাসা পড়–য়া মেয়েকে মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার পথে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল। স্থানীয় মেমেনীয়া দাখিল মাদ্রাসার ওই ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারের কাছে অভিযোগ দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৫ মার্চ মাদ্রাসা থেকে বাড়ি ফেরার পথে রত্তন আলী মেিেঠকে পথে আটকে শ্লীলতাহাণী ঘটায়। এসময় তার ডাক চিৎকাওে পথচারীরা দৌড়ে আসলে রত্তন পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় ভূক্তভোগি মেয়েটির মা বাদি হয়ে রত্তন আলীকে আসামী করে গতকাল বুধবার বিকেলে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পুলিশ  রাতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রত্তন আলীকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. গোলাম সরোয়ার জানান, গ্রেফতারকৃত বখাটেকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন