সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক :

ঈদ উপলক্ষে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সামাজিক সংগঠন রেঁনেসা এর উদ্যোগে মঠবাড়িয়ার ১৩জন গুণিজনকে সম্মানার আয়োজন করা হয়েছে। আজ বুধবার ঈদের তৃতীয় দিনে সন্ধ্যায় মঠবাড়িয়া সরকারী ডাকবাংলো মিলনায়তনে এ সম্মাননা অনুষ্ঠিত হয়। মমিন উদ্দিন স্মৃতি সাহিত্য পরিষদের সহযোগিতায় মুক্তিযুদ্ধ,শিক্ষা,সমাজ উন্নয়ন,শিল্প-সাহিত্য ও কৃষিতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ রেনেসাঁ-২০১৭ সম্মাননা প্রদান করা হয়।
যাঁদের সম্মাননা পেলেন, বরেণ্য রাজনীতিক ও জাতীয় নেতা প্রয়াত মহিউদ্দিন আহম্মেদ(মরনোত্তর), মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও বীর বিক্রম প্রয়াত মেজর(অব:) ক্যাপ্টেন মেহেদী আলী ইমাম, বিশিষ্ট কৃষিবিদ প্রয়াত মো. আব্দুস সামাদ তালুকদার(মরনোত্তর), বরেণ্য শিক্ষক ও মঠবাড়িয়া কে.এম লতীফ ইনস্টিটিউশনের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রয়াত মো. শামসুল হক(মরনোত্তর), বরেণ্য সাংবাদিক ও মঠবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠা সভাপতি প্রয়াত মোস্তফা গোলাম ফারুক বাচ্চু(মরনোত্তর), ভাষা সৈনিক ও গুলিসাখালী জিকে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. হাবিবুর রহমান খান, শহীদ নূর হোসেনের মা শহীদ জননী মরিয়ম বিবি,বিশিষ্ট গণসংগীত শিল্পী ও মঠবাড়িয়া কে.এম লতীফ ইনস্টিটিউশনের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বাসুদেব মিত্র, দেশ বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শংকর সাওজাল, লেখক ও গুলিসাখালী জিকে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নূর হোসাইন মোল্লা, জননন্দিত ফুবলার দেলোয়ার হোসেন বাদল ও সফল নার্সারী কৃষক মো. বাবুল মাতুব্বর।

সম্মাননা আয়োজক সংগঠন রেঁনেসার সংগঠক মো. রাসেল সবুজ জানান, বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ মঠবাড়িয়ার এ ১৩জন কৃতিসন্তানকে সম্মাননা জানানো হচ্ছে। অনুষ্ঠানে তাঁদের জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি তাঁদের সম্মননা স্মারক ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। এ গুণিজন সম্মননা অনুষ্ঠানটি রেনেসাঁর আয়োজনে ভবিষ্যতে অব্যহত রাখার পরিকল্পনাও হাতে নেয়া হয়েছে।শেষে মঠবাড়িয়া বাল্য বিবাহ মুক্ত উপজেলা করার দাবিতে গণসংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। এ গণ সংলাপে অংশ নেন, মঠবাড়িয়া নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুল হক মজনু, অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নূর হোসাইন মোল্লা, মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম জালাল, আ.লীগ নেতা মো. হারুন অর রশীদ, মঠবাড়িয়া উদীচীর সভাপতি শিবু সাওজাল , উদীচীর সাধারণ সম্পাদক উদয় শংকর ভক্ত, সাংবাদিক ইসলাত জাহান মমতাজ, সাংবাদিক মো. শাহাদাত হোসেন, মো. রিয়াজুল হক, রেনেসাঁর উদ্যোক্তা রাসেল সবুজ, খালিদ মোহাম্মদ সাব্বির, ইউপি সদস্য ইয়াকুব আলী ফরাজি, ব্যাংকার মোস্তফা ডালিম তন্ময়, সামাজিক উদ্যোক্তা মো. নূরুল আমীন রাসেল ও  সমাজ সেবক হরিদাস শিপন প্রমূখ।
গণ সংলাপে মঠবাড়িয়াকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষণা করা নানা প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয়।

ছবি > প্রিন্স মাহমুদ

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন