মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে নাশকতার চেষ্টার অভিযোগে বিএনপির ৬৮ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে মঠবাড়িয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শওকত হোসেন বাদী হয়ে বিএনপি ও ও অঙ্গ সংগঠনের ৮ নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখ করে এ মামলাটি করা হয়। এতে আরও ৬০ জন অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। এতে স্থানীয় বিএনপি নেতা কর্মীদের মাঝে গ্রেফতার আতংক বিরাজ করছে।

মামলায় পুলিশ উপজেলা স্বেচ্চাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম (৩২), মঠবাড়িয়া পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আউয়াল হাওলাদার (৪০), ছাত্রদল কর্মী অলিউল্লাহ (২৪) ও রুবেল (২৩) কে গ্রেফতার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার আদালতে সোপর্দ করেছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, কারাগারে বন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বানচালের জন্য আসামিরা গত বুধবার রাতে মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়কের পূর্ব কবুতরখালী এলাকায় সড়ক কেটে ও সড়কের ওপর গাছের গুড়ি ফেলে নাশকতার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চার জনকে আটক করলেও জড়িত বাকি আসামিরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সড়ক কাটার খোন্তা, শাবল, দা উদ্ধার করে। মামলায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক ইসমাইল ঘরামীসহ যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের আট নেতার নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ব্যাপাওে মঠবাড়িয়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন দুলাল মামলা হয়রাণি মূলক দাবি করে বলেন, বিএনপির কোন নেতা-কর্মী নাশকতার সঙ্গে জড়িত নয়। আমরা যখনি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি তখনি পুলিশ নেতা-কর্মীদের নামে গায়েরি মামলা দেয়া হচ্ছে।

মঠবাড়িয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাজহারুল ইসলাম (বিপিএম) বলেন, সড়ক কেটে গাছ ফেলে নাশকতার করার চেষ্টার সময় পুলিশ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। এটা গায়েবি কোন ঘটনা না।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন