Home - অপরাধ - মঠবাড়িয়ার ইউপি সদস্য লতিফ হত্যায় ১৫জনকে আসামী করে মামলা

মঠবাড়িয়ার ইউপি সদস্য লতিফ হত্যায় ১৫জনকে আসামী করে মামলা

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার বকশীর ঘটিচোরা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মো. আব্দুল লতিফ হাওলাদার(৫২)কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ১৫জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে । ঘটনার একদিন পর নিহত ইউপি সদস্যর ছেলে মাহবুব হাওলাদার সবুজ বাদী হয়ে সোমবার দিনগত রাতে মঠবাড়িয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় একই গ্রামের প্রতিপক্ষ চাঁন মিয়া তালুকদারের ছেলে সবুজ তালুকদার(৩২)কে প্রধান আসামী করে ১৫জন নামীয় ও অজ্ঞাত আরও ৫/৭জনকে আসামী করা হয়েছে।

জমি নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে রোববার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে উপজেলা সদর ইউনিয়নের বকশীরঘটিচোরা গ্রামের আন্ধারমানিক তুলাতলা বাজার সংলগ্ন সড়কের ওপর এ হত্যাকান্ড ঘটে। এসময় ওই ইউপি সদেস্যর সঙ্গে তার আপন ভাইয়ের ছেলে ইদ্রীস হাওলাদার(৩৫) বাঁচাতে এলে তাকেও নৃশংসভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে প্রতিপক্ষ দুর্বৃত্তরা।

থানায় দায়েরকৃত মামলায় অভিযোগ আনা হয়েছে, বকশীর ঘটিচোরা গ্রামের চাঁন মিয়া তালুকদারের ছেলে সবুজ তালুকদার এর পরিবারের সাথে সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ হাওলাদারের পরিবারের সাথে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। জমি সংক্রান্ত এ বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষ সবুজ তালুকদারের পরিবার আদালতে মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে রোববার ফজরের নামাজ শেষে ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ তার ভাইয়ের ছেলে ইদ্রিস হাওলাদারকে সাথে নিয়ে বাড়ি থেকে পিরোজপুর জেলা শহরের উদ্দেশ্যে বের হন। পথে আন্ধারমানিক-তুলাতলা বাজারের কাছে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা প্রতিপক্ষ সবুজ তালুকদার ও ১৫ জনের দলবল থরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলাপাতারি কুপিয়ে ইউি সদস্য ও তার ভাইয়ের ছেলেকে গুরুতর জখম করে পথে ফেলে রেখে মোটরসাইকেল যোগে উল্লাস করতে করতে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আহত দুইজনকে উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। পথে ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ মারা যান।

এদিকে বরিশাল কোতয়ালী থানা পুলিশ নিহত ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফের লাশ উদ্ধার করে উপ পরিদর্শক ফিরোজ আল মামুন লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন করে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন। পরে সোমবার সন্ধ্যায় লাশ নিহতর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। রাতে জানাজা শেষে লাশ গ্রামের বাড়ির পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গোলাম ছরোয়ার জানান, সাবেক ইউপি সদস্য লতিফ হাওলাদারের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতর ছেলে বাদি হয়ে প্রতিপক্ষ ১৫জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। আসামীরা ঘটনার পর থেকে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। তাদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Leave a Reply

x

Check Also

কে এম লতিফ ইনস্টিটিউশনের পাশের হার ৯৮.৬২% জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৫১ জন

  মেহেদী হাসানঃঃ এবারের প্রকাশিত এস এস সি ও সমমনা পরীক্ষায় পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার কে এম ...