ব্রেকিং নিউজ
Home-অনির্বাচিত-মঠবাড়িয়ায় হাসপাতালের সামনে শিশুর লাশ ফেলে পালানো সেই সৎ মা ও বাবা গ্রেফতার

মঠবাড়িয়ায় হাসপাতালের সামনে শিশুর লাশ ফেলে পালানো সেই সৎ মা ও বাবা গ্রেফতার

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি 🔴

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায়য় সৎ মায়ের মারধরে হানযালা নামে পাঁচ বছর বয়সী শিশুর মৃত্যুর পর লাশ হাসপাতালে একটি এ্যাম্বুলেন্সে রেখে পালিয়ে যাওয়া হত্যাকারি সৎ মা ও শিশুটির বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সৎ মা শাহানা বেগম ও শিশুর বাবা ওয়ার্কশপ শ্রমিক জুয়েল মুন্সিকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় থানা গেটে শিশু হত্যার বিচার দাবিতে শিশুটির স্বজনসহ এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ জড়ো হন।

থানা ও স্থানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, গত আট বছর আগে শহরের দক্ষিণ বন্দর মহল্লার বাসিন্দা ইউসুফ মুন্সির ছেলে জুয়েল মুন্সির সঙ্গে উপজেলার সবুজ নগর গ্রামের দিন মজুর আব্দুল হালিম শেখ এর মেয়ে সুবর্না বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের দুই বছর পর হানাযালার জন্ম হয়। পরে শিশুটির বাবা জুয়েল দ্বিতীয় বিয়ে করলে প্রথম স্ত্রীর সাথে দাম্পত্য বিরোধের সৃষ্টি হয়। গত দেড় বছর আগে প্রথম স্ত্রীর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। পরে শিশুটির মায়ের অন্যত্র বিয়ে হলে শিশু হানযালা নানির কাছে থাকতো। গত শবেবরাতের দিন বাবা জুয়েল মুন্সি তার সস্তান হানযালা কে শহরের দক্ষিণ বন্দর ভাড়া বাসায় সৎ মায়ের কাছে নিয়ে আসেন। এ নিয়ে জুয়েল মুন্সি ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী শাহানার সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। গত ১৪ এপ্রিল (বুধবার) রাতে অচেতন অবস্থায় শিশুটিকে শহরের বেসরকারি মা ও জেনারেল শিশু হাসপাতাল নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক সন্ধ্যায় শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। শিশুটির কপালে ও হাতে জখমের চি‎হ্ন ছিলো। পরে রাত ১২টার দিকে এ্যম্বুলেন্স যোগে শিশুটির লাশ মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ফেলে বাবা ও সৎ মা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়। এঘটনায় শিশুটির নানি হাসি বেগম গত শনিবার বাদি হয়ে থানায় শিশুটির সৎ মা সহ পাঁচজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান বলেন, মৃত শিশুরটির আপন মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছিল। ঘটনার পর শিশুটির বাবা ও সৎ মা পলাতক ছিল। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে অবস্থান শনাক্ত করে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

x

Check Also

মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পিরোজপুরে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

পিরোজপুর প্রতিনিধি 🔻 ‘বেশি বেশি মাছ চাষ করি, বেকারত্ব দুর করি” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে জাতীয় ...