মার্চ ২৮, ২০২০

আজকের মঠবাড়িয়া

সত্য প্রচারে সোচ্চার

মঠবাড়িয়ায় করোনা ভাইরাস রোধে নিরাপত্তা সরঞ্জাম সরবরাহের দাবি উদীচীর

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি <>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ডাক্তার-নার্স স্বাস্থ্যকর্মী, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, গ্রাম পুলিশ ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী মঠবাড়িয়া শাখার নেতারা। আজ বুধবার দুপুরে মঠবাড়িয়া উদীচী কার্যালয়ের সভা কক্ষে এক জরুরী সভায় এ দাবি জানানো হয়।

মঠবাড়িয়া উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক ইসরাত জাহান মমতাজ বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় এখন পর্যন্ত মাঠে নিরলোশ ডাক্তার-নার্স স্বাস্থ্যকর্মী, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, গ্রাম পুলিশ , সমাজকর্মী ও সাংবাদিকদরা নিরাপত্তার কাজ করে যাচ্ছেন। সেবাদানকারি এসব প্রতিষ্ঠানের মানুষ সবচেয়ে বড় ঝুঁকির মুখে রয়েছেন । যে কারণে তাদের পেশাগত দায়িত্বপালন কালিন নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ।
করোনা মোকাবেলায় জন্য বিশেষ পোষাক’ প্রাইভেট প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বিশেষ প্রয়োজন। এ দুর্যোগ মোকাবেলায় ডিজপোজাবল এসব পিপিইর মত জরুরী ও জীবন রক্ষাকারী সামগ্রী সরবরাহে সরকারের পাশাপাশি দেশের ভিত্তবানদের আহবান জানিয়েছে উদীচী। প্রয়োজনে বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে বিদেশ থেকে জীবন রক্ষাকারী সামগ্রী সংগ্রহ করা যেতে পারে।
এদিকে প্রশাসন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আশু ব্যবস্থা গ্রহণে উপজেলার হাট বাজার ও মানুষের সমাগম সীমিত আকারে বন্ধে মাইকিং করে প্রচারণা চালাচ্ছে। অভ্যন্তরীণ রুটে যানবাহন চলচলও কমে যাওয়ায় মানুষের প্রকাশ্য সমাগম কমতে শুরু করেছে। এছাড়া উপজেলা সদরে ব্যাংকসহ আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে করোনা প্রতিরোধে বাড়তি সর্তকতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ভ্রাম্যমাণ আদালত চলমান রয়েছে। পাশাপাশি গণজমায়েত ঠেকাতে ও সংকট মোকাবেলায় আজ বুধবার থেকে সেনা পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে মাঠে।
উল্লেখ্য, উপজেলা প্রশাসনের হিসেব মতে ৪৫০ জন বিদেশ ফেরত প্রবাসী থাকলেও মাত্র দুই শতাধিক প্রবাসীর খোঁজ পাওয়া গেছে বাকিদের কোন হাদিস মিলছেনা। ৯৫ জনকে হোম-কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে সবাই বিদেশ ফেরত। অপর দিকে হোম-কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় দুই জনকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে
স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রিপন বিশ^াস বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে মানুষকে সচেতনভাবে ঘরে অবস্থানের সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এখন মানুষের উচিত জীবনের স্বার্থে বাসায় অবস্থান করা।