ফেব্রু ৫, ২০২০

আজকের মঠবাড়িয়া

সত্য প্রচারে সোচ্চার

মঠবাড়িয়ায় বৃদ্ধা মাকে কুপিয়ে হত্যা করল মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়ে !

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি <>
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ফিরোজা নাসরিন (৫৬) নামে এক বিধবা বৃদ্ধা মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে পাষণ্ড ্ মেয়ে। আজ বুধবার সকাল দশটার দিকে মঠবাড়িয়া পৌর শহরের কলেজপাড়া মহল্লায় নিজ বাসায় ওই বৃদ্ধা মা নিজ মেয়ে তামন্না জেবীন(৩০) এর হাতে এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন হত্যাকারি তামান্না বিয়ে বিচ্ছেদের পর মায়ের আশ্রয়ে ছিলেন। সে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলো। পুলিশ নিজ বাসা থেকে নিহত বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মেয়ে তামান্না জেবীনকে পুলিশ আটক করেছে।
নিহত বৃদ্ধা ফিরোজা নাসরিন মঠবাড়িয়া পৌর শহরের কলেজ পাড়ার সাবেক অগ্রণী ব্যাংক ব্যবস্থাপক মৃত হেমায়েত উদ্দিন হাওলাদারের স্ত্রী ।
থানা ও স্থানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়া পৌরশহরের কলেজ পাড়ার বাসিন্দা ফিরোজা নাসরিন তার স্বামীর মৃত্যুর পর এক ছেলে এক মেয়ে নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। ছেলে রিয়াজ উদ্দিন হাওলাদার বিয়ে করে শহরের হাসপাতাল এলাকায় আলাদা বাসা নিয়ে থাকতেন। অপরদিকে মেয়ে তামান্না জেবীন এর গত ১০ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা না হওয়া কিছুদিনের মধ্যে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এর পর থেকে মেয়ে তামান্না জেবীন বিধবা মা এর সাথে থেকে কলেজে লেখা পড়া করে আসছিলো। সম্প্রতি মেয়ে জেবীন মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন। গতকাল মঙ্গলবার মায়ের সাথে ঝগড়াঝাটি হলে জেবীন বাসার মালামাল ভাংচুর করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ভাই রিয়াজ বাসায় এসে বোনকে শান্ত করেন। আজ বুধবার সকালে ভাই রিয়াজ বাসায় এসে বোনের জন্য ঔষধ কিনতে বাজারে যান। এসময় বাসায় মা ও বোন ছিলেন। সকাল দশটার দিকে বৃদ্ধা মা রান্না করে কাজ করছিলেন। এসময় হঠাৎ উত্তেজেতি হয়ে জেবীন ধারালো বটি দিয়ে নৃশংসভাবে মাকে কৃুপিয়ে গুরুতর জখম করে। ধারালো অস্ত্রের কোপে বৃদ্ধা মায়ের মাথার ঘিলু ও রক্তক্ষরণ হলে সে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। পাকা ভবনের দরোজা জানালা বন্ধ থাকায় পাড়া প্রতিবেশেী হতভাগ্য বৃদ্ধার আর্ত চিৎকারও শুনতে পাননি।
নিহত বৃদ্ধার ছেলে রিয়াজ উদ্দিন জানান, তিনি বোনের জন্য ঔষধ কিনে পৌনে এগারটার দিকে বাসায় এসে দরোজা খোলার জন্য মাকে ডাকেন। কিন্তু কারও কোনও সাড়া না পেয়ে প্রতিবেশীদের ডেকে দরোজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢোকেন। ঘরে ডুকে তিনি বোনকে বিছানায় নিস্তেজ হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন আর রান্না ঘরে বৃদ্ধা মায়ের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে পাড়া প্রতিবেশীদের ডাকেন। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে।
এ বিষয়ে মসঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জ.ম মাসুদুজ্জামান ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল হতে নিহত বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। মাকে হত্যার অভিযোগে মেয়ে জেবীনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com