জানু ২৪, ২০২০

আজকের মঠবাড়িয়া

সত্য প্রচারে সোচ্চার

শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার 🎤গৃহয়ান ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম

পিরোজপুর প্রতিনিধি <>
গৃহয়ান ও গনপূর্তমন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এদেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে সম্প্রসারনের জন্য আপ্রান চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তিনি দেশের নাগরিকদের সুনাগরিক ও সুশিক্ষিত হিসাবে গড়ে তুলতে অবিরাম পরিশ্রম করে চলছেন। তিনি ডিগ্রী পর্যন্ত বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ করে দিয়েছেন। দেশর শিক্ষা ব্যবস্থাকে জাতীয় করন করতে সকল কার্যক্রম চলছে। একজন শিশুও যাতে পাঠ থেকে ঝড়ে না পড়ে সে জন্য দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ চলছে। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের বিনা মূল্যে বই প্রদানের ব্যবস্থা করছেন প্রধানমন্ত্রী।
মন্ত্রী শুক্রবার পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার বাবুরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৫০ বছর (সুবর্ন জয়ন্তী) পূর্তী উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। বিদ্যালয় মাঠে বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্নু’র সভাপতিত্বে ও অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মো. জাহিদুল ইসলাম জাহিদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত ওই সভায় বক্তব্য রাখেন পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার মো. হায়াতুল ইসলাম খান, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক নাহিদ ফারজানা সিদ্দিকী, গনপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্ব নাথ বনিক, এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত রঞ্জন রায়, শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রতিভা সরকার, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমি মো. শায়েফ প্রমুখ। এ ছাড়া ওই বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন পিরোজপুর সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো. দেলোয়ার হোসেন, বিআই ডব্লিউটিএ’র অতিরিক্ত চীফ ইঞ্জিনিয়ার এম আতাহার আলী সরদার, প্রদীপ কুমার দত্ত, ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার মনিরুজ্জামান আতিয়ার, উপজেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক মো. তরিকুল ইসরাম চৌধুরী তাপস, মো. বদিউজ্জামান ভুইয়া প্রমুখ। মন্ত্রী এর আগে প্রায় ৩কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যায়ে ওই বিদ্যালয়ের জন্য বরাদ্দকৃত নতুন একটি চারতলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এ উপলক্ষে দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
নাজিরপুরে বঙ্গবন্ধুর ম্যূরাল উদ্ভোধন
এর আগে শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ গেট সংলগ্ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল কার্যালয়ে সামনে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বঙ্গবন্ধুর একটি ম্যূরাল আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্ভোধন করেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, আজ আমার জীবনের একটি আনন্দের দিন। যে মানুষটি জম্ম না হলে আমরা এই দেশটাকে পেতাম না। সেই মানুষটিকে আমরা দীর্ঘ অবজ্ঞায় রেখেছি, অবহেলা রেখেছি। ১৫ আগস্ট একটি চেয়ার এনে অফিস থেকে বঙ্গবন্ধুর একটি ছবি নামিয়ে সেখানে ফুল দিয়ে দায়সারা ভাবে কিছুক্ষণের জন্য তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আবার তা সরিয়ে ফেলা হতো। দীর্ঘদিন অনেক অফিসেও বঙ্গবন্ধুর ছবিও ছিলো না। আমি জানি এতে আপনারা যারা প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা তাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছিলো। কারণ যে মানুষটির ডাকে সাড়া দিয়ে আপনারা মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন। মুজিব শতবর্ষে আজ নাজিরপুরে বঙ্গবন্ধুর একটি ম্যূরাল উদ্ভোধন করতে পেরে আমি আনন্দিত।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com