ব্রেকিং নিউজ
Home - মঠবাড়িয়া - মঠবাড়িয়ায় এডিবি উন্নয়ন বরাদ্দের ৬০ লাখ টাকা ফেরত স্থানীয় সাংসদকে দায়ি করে বিক্ষোভ-সমাবেশ

মঠবাড়িয়ায় এডিবি উন্নয়ন বরাদ্দের ৬০ লাখ টাকা ফেরত স্থানীয় সাংসদকে দায়ি করে বিক্ষোভ-সমাবেশ


মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এডিবির উন্নয়ন খাতের ৬০ লাখ টাকা ফেরত যাওয়ায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সরকারি হিসাব সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ডা. রুস্তম আলী ফরাজির হস্তক্ষেপে ওই উন্নয়ন বরাদ্দ ফেরত যাওয়ার অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ-সমাবেশ ও ঝাড়ু মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা ১১ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ভাইস চেয়ারম্যাগণ আজ মঙ্গলবার বিকেলে এ প্রতিবাদ সমাবেশ করে।
উপজেলা পরিষদ চত্বর হতে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শেষে শহীদ মিনার চত্বর ও উপজেলা পরিষদ সম্মূখ ফটকে দুই দফা প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান সিফাত, দাউদখালী ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক রাহাত, গুলিসাখালী ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল আলম ঝনো, টিকিকাটা ইউপি চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রিপন ও ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মুর্তযা প্রমূখ।
শেষে সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ১১ ইউপি চেয়ারম্যানগণ সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিবাদ জানান।
সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এসময় ১১ ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন।
এতে অভিযোগ আনা হয়, মঠবাড়িয়া উপজেলার ১১ ইউনিয়নে অবকাঠামোগত উন্নয়নে এডিবি প্রকল্প হতে ৬০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। করোনা দু‌র্যো‌গের কার‌ণে সাধারণ ছু‌টি থাকায় মঠবা‌ড়িয়া উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের আওতায় উপ‌জেলা প্রকৌশল বিভাগ রাজস্ব তহ‌বি‌লের প্রকল্প গ্রহণ ও টেন্ডার প্রক্রিয়া যথা সময়ে সম্পন্ন কর‌তে পারেনি। ‌এমন অবস্থায় নির্ধারিত ‌ঠিকাদারগন কাজ সম্পন্ন কর‌তে পা‌রে‌ননি। এ পরিস্থিততিতে স্থানীয় উন্নয়নের স্বার্থে উপজেলা প‌রিষদ জরুরী সভায় সর্বসম্ম‌তিক্রমে বিশেষ জামানত রে‌খে জুন ক্লো‌জিং এর সিদ্ধান্ত হয়। সংসদ সদস‌্য ডাক্তার রুস্তম আলী ফরাজী এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন না করার জন‌্য ইউএনও, উপ‌জেলা প্রকৌশলী ও হিসাব রক্ষন কর্মকর্তাসহ সং‌শ্লিষ্ট দপ্তরের সকল‌কে চাপ সৃ‌ষ্টি ক‌রেন। এ‌তে উপ‌জেলার ১১‌টি ইউ‌নিয়‌নে বরাদ্দকৃত ৬০ লক্ষ টাকা ফেরত চলে যায়। এ ঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্যে উন্নয়ন বিরোধি হস্তক্ষেপ করা অভিযোগ তুলে মঠবা‌ড়িয়া উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান ও সকল ইউপি চেয়ারম‌্যানগণ বিক্ষুব্দ হন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানগণ এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে উন্নয়ন বরাদ্দের সমুদয় অর্থ মঠবাড়িয়ার স্বার্থে বহাল রাখার দাবি জানান।
এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. রুস্তুম আলী ফরজির মোবাইল ফোনসেট বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

x

Check Also

পিরোজপুরে জমি নিয়ে বিরোধে নারী সহ আহত ৫- থানায় অভিযোগ

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃঃ পিরোজপুরের নাজিরপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক নারী সহ ৫ জন আহত ...