ঢাকা: সৌদি আরবে শিয়া সম্প্রদায়ের এক শীর্ষ আলেমের মৃত্যদণ্ড কার্যকরের প্রতিবাদ জানিয়েছে ইরান। দেশটিকে সতর্ক করে দিয়ে ইরান বলেছে, এর জন্য সৌদিকে চড়া মূল্য দিতে হবে।

শিয়া আলেম আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের প্রতিবাদে শনিবার ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ হুশিয়ারী দেয়া হয়।

এর আগে, শনিবার সন্ত্রাসী হামলায় দোষী সাব্যস্ত ৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছ সৌদি। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সন্ত্রাসী হামলা চালানো এবং হামলার পরিকল্পনার ঘটনায় যে ৪৭ জন অভিযুক্ত হয়েছিলেন তাদের সবার শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। এদের মধ্যে বিখ্যাত শিয়া নেতা নিমর আল নিমরও রয়েছেন।

সৌদি আরবে ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে ওই হামলার ঘটনাগুলো ঘটেছিল। জঙ্গি গোষ্ঠী আল কায়দার নেতৃত্বে এসব হামলা হয়েছিল। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া ওই ৪৭ জনের অধিকাংশই সৌদি নাগরিক। মাত্র দুজন বিদেশি। একজন মিশর ও অন্যজন চাদের নাগরিক।
মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে যে ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করা হয় সৌদিতে

মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে যে ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করা হয় সৌদিতে
মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে যে ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করা হয় সৌদিতে

২০১৫ সালে বিভিন্ন অপরাধে ১৫২ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছিল সৌদি সরকার। মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দেয়া তথ্য মতে, দেশটিতে গত দুই দশকের মধ্যে গত বছরই সবচাইতে বেশি সংখ্যক শিরশ্ছেদের ঘটনা ঘটেছিল। এর আগে, ২০১৪ সালে মাত্র ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছিল। ১৯৯৫ সালে দেশটিতে সর্বোচ্চ ১৯২ জনের শিরশ্ছেদ করা হয়।

অ্যামনেস্টির তথ্য অনুযায়ী, গত বছর ইরান ও চীনের পর তৃতীয় দেশ হিসেবে সর্বোচ্চ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে দেশ সৌদি আরবে। খুন, মাদকদ্রব্য পাচার, সশস্ত্র ডাকাতি, ধর্ষণ ও ধর্মত্যাগের মতো অপরাধেও সেখানে শিরশ্ছেদ হয়ে থাকে।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন