ঢাকা : আবারো বিতর্কে জড়িয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এমনি ভারতের ‘স্বল্প শিক্ষিত’ এ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি বেশি বেশি বিদেশ সফর করেন। আর সফরে গিয়ে নানা রকম প্রোটোকল ভেঙে বেশ কয়েকবার তোপেও পড়তে হয়েছে। কিন্তু এবারের বিষয়টাই ভিন্ন। দেশের জাতীয় সঙ্গীতের সময় দাঁড়াননি প্রধানমন্ত্রী! তাও আবার বিভূঁইয়ের একজন তাকে পেছন থেকে টেনে দাঁড়াতে বাধ্য করেন।

এমন ঘটনা ঘটে রাশিয়া সফরে। বুধবারই দু দিনের সফরে রাশিয়া গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

রাশিয়ার প্রোটোকল অনুযায়ী, মস্কো বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানানোর আয়োজন করা হয়েছিল। জাতীয় সঙ্গীতের সুরে মোদীকে গার্ড অব অনার জানানো শুরু করেন সে দেশের সেনা জওয়ানরা। সেই সময় দাঁড়িয়ে না থেকে, প্রধানমন্ত্রী হঠাত্‍‌ই হাঁটতে শুরু করেন। তাকে রাশিয়ার এক কর্তা এগিয়ে এসে সতর্ক করেন এবং মোদীর হাত ধরে তাকে দাঁড়িয়ে থাকার কথা বলেন। এরপর দাঁড়িয়ে অভ্যর্থনা গ্রহণ করেন মোদী।

এই ঘটনায় দেশজুড়ে উঠেছে সমালোচনার ঝড়। জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর এমন আচরণের নিন্দায় সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন মানুষজন।

এ ধরনের সমোলোচনায় মোদী এই প্রথম নন। এর আগেও আসিয়ান বৈঠকে যোগ দিয়ে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের সময় উল্টো করে লাগানো পতাকাতলে বৈঠক করে চরম বিতর্কে জড়ান তিনি। বৈঠকের ছবিতে দেখা গিয়েছে, ভারতের পতাকা উল্টোভাবে লাগানো হয়েছে। একে অনিচ্ছাকৃত ভুল বলা হলেও, এই মারাত্মক বিষয়টা কীভাবে মোদীর চোখ এড়িয়ে গেল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন