পিআইবির সেই সম্পাদিত ছবি, যা অনলাইনে হাসির খোরাক হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বন্যাকবলিত চেন্নাই পরিদর্শনের একটি ছবি জালিয়াতি করে ইন্টারনেটে হাসির খোরাক হয়েছে ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো-পিআইবি।

দক্ষিণ ভারতে একশ বছরের মধ্যে ভয়াবহতম এই বন্যার চিত্র নিজের চোখে দেখতে বৃহস্পতিবার চেন্নাইয়ে যান প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিমানের জানালা দিয়ে তার নিচের পরিস্থিতি দেখার একটি ছবি পিআইবি টুইট করে। অস্পষ্টভাবে পানিতে তলিয়ে থাকা জমি ও ঘরবাড়ি দেখা যায় ওই ছবিতে।

কয়েক ঘণ্টা পর পিআইবি আবারও একই ছবি টুইট করে, যেখানে জানালার দৃশ্য ছিল বিসদৃশ রকমের স্পষ্ট।

বিমান থেকে বন্যা দেখার এই আসল ছবি নেরেন্দ্র মোদী নিজেই টুইট করেছেন।
বিমান থেকে বন্যা দেখার এই আসল ছবি নেরেন্দ্র মোদী নিজেই টুইট করেছেন।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পিআইবি দ্বিতীয় টুইটের ছবিটি পরে মুছে ফেললেও ততক্ষণে তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে হাস্যরস আর তীর্যক মন্তব্যের জন্ম দেয়।

ছবি মুছে ফেলার কোনো ব্যাখ্যা বা বিবৃতিও ভারত সরকারের এই দপ্তর দেয়নি।

বিমান থেকে বন্যা দেখার এই আসল ছবি নেরেন্দ্র মোদী নিজেই টুইট করেছেন।
পিআইবিকাণ্ডের পর রসিক এক টুইটার ব্যবহারকারীর সৃষ্টিকর্ম

পিআইবিকাণ্ডের পর রসিক এক টুইটার ব্যবহারকারীর সৃষ্টিকর্ম
অসময়ে প্রবল বৃষ্টিতে তামিলনাড়ু রাজ্যে এই বন্যায় গত এক মাসে আড়াইশর বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। উদ্ধারকর্মীরা চেন্নাই থেকে সাত হাজারের বেশি মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছেন।

এই দুর্যোগের মধ্যে পিআইবির এমন কাণ্ডের পর বন্যা আর মোদীর ছবি ফটোশপে ফেলে আরও অনেক অভিনব ছবির জন্ম দিয়েছেন টুইটার ব্যবহারকারীরা।

বিবিসিতে আসা এমনই এক ছবিতে দেখা যায়, চেন্নাইয়ের রাস্তায় পানি ভেঙে যানবাহন চলছে, আর মোবাইল ফোন মুখের সামনে ধরে মোদী তুলছেন বন্যার সেলফি।

হোসে কোভাকো নামের একজন পিআইবির কাণ্ড নিয়ে এক টুইটে লিখেছেন, “আজ পিআইবিতে কোনো একজনের চাকরি সাঙ্গ হলো। কত বড় আহাম্মুকি। নরেন্দ্র মোদীর কাছে মাফ চাওয়া উচিৎ।”

ফটোশপে তৈরি এই ছবিটি গতবছর টুইটারে ভাইরাল হয়ে যায়।
সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সমস্ত কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিক ‘আপডেট’ দিয়ে আলোচিত মোদীর ক্ষেত্রে ‘ফটোশপ জটিলতা’ অবশ্য নতুন নয়।

গত বছর তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগেই একটি ছবি টুইটারে ভাইরাল হয়ে যায়। সেখানে দেখা যায়, কম্পিউটার স্ক্রিনে নরেন্দ্র মোদীর বক্তৃতার ভিডিও দেখছেন খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা!

ভারতের এক রাজনীতিবিদ সেই ছবি আবার শেয়ারও করেন; সেটি যে ‘ভুয়া’ তা তিনি বুঝতে পারেননি।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন