মো. রাসেল সবুজ >>

মঠবাড়িয়া পাঠাগার আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক, তরুণ কবি ও সংস্কৃতিকর্মী মেহেদী হাসান আজ বিকেলে পরিবারের সদস্যদের সাথে মঠবাড়িয়া থেকে তুষখালী যাবার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়। তাদের পরিবহন করা মাহেন্দ্র গাড়িটিকে ঘাতক ট্রাক আঘাত করলে গাড়িটি উল্টে রাস্তার বাহিরে ছিটকে পরে ঘটনাস্থলেই মেহেদী হাসানের একটি হাত ভেঙ্গে যায়। পাশাপাশি চোখের নিচেও প্রচন্ড আঘাত লাগে। মাহেন্দ্রর অন্যান্য যাত্রীদের মধ্যে মেহেদীর মাও সামান্য আহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পরে উপস্থিত লোকেরা আহতদের উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিকেলেই মেহেদীকে বরিশালে প্রেরন করেন। মেহেদী বর্তমানে বরিশালে রয়েছে। একটি হাত ভাঙ্গলেও মেহেদী বর্তমানে আশংকামুক্ত।

বিশ্বব্যাংকের হিসেব মতে আমাদের দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিবছর প্রায় ২১ হাজার মানুষ প্রান হারায়।আহতর সংখ্যা এর কয়েকগুণ। সবাই সচেতন হলে এই দুর্ঘটনা প্রায় শূন্যের কোঠায় কমিয়ে আনা সম্ভব।

আসুন সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সবাই সরব হই।বিশেষ করে মঠবাড়িয়ার সকল সচেতন তরুণদের প্রতি অনুরোধ রইলো #নিরাপদ_সড়ক_চাই আন্দোলনের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য।
পথ হোক শান্তির, মৃত্যুর নয়!

মোঃ রাসেল সবুজ
সদস্য, নিরাপদ সড়ক চাই- কেন্দ্রীয় কমিটি।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন