শাকিল আহমেদ, মঠবাড়িয়া 🔶
ছোটবেলা থেকে ইচ্ছা ছিল সমাজের ভালো মানুষের সাথে চলাফেরা করার। আর সব শ্রেনীর মানুষের সাথে চলাফেরার একমাত্র মাধ্যম পত্রিকা। কারণ আমাদের দেশে চাকুরীজীবী, আইনজীবনী, রাজনীতিবিদ, শিক্ষক সহ সকল শ্রেনী-পেশার মানুষ পত্রিকা পড়ে থাকে। বিষয়টি নিজ থেকে উপলদ্ধি করতে পেরে আজ থেকে ২০ বছর আগে এই পত্রিকা বিক্রির পেশায় নিযুক্ত হই। এই স্বপ্ন সুখের কথাগুলো বলছিলেন পত্রিকা বিক্রেতা সুলতান আহম্মেদ (৪৫)। তিনি আমাদের উপকূলে পত্রিকা সুলতান নামে সমধিক পরিচিত।

সুলতান তিনি জানান, এ পেশায় ব্যবসা সামান্য। কিন্তু সমাজের ভালো ভালো মানুষের সাথে কথা বলা যায়। সুলতান আহম্মেদ এর গ্রামের বাড়ি পাথরঘাটা উপজেলার দক্ষিণ গোলবুনিয়া গ্রামে। তিনি প্রতিদিন পাথরঘাটার ওই গ্রাম থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে মঠবাড়িয়া সদরের আশা নিউজ এজেন্সি থেকে পত্রিকা নিয়ে মঠবাড়িয়ার বান্ধবপাড়া বাজার ও পাথরঘাটা উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। পত্রিকা বিক্রি করে যে টাকা আয় হয় তা দিয়ে একমাত্র কন্যার পড়াশুনার খরচ এবং সংসার চালাতে কষ্ট হয়। গত ১০/১২ বছর পূর্বে সুলতানের ঘাড়ে একটি টিউমার হয়। বর্তমানে টিউমারটি অনেক বড় হয়ে গেছে। টিউমারটি অপারেশন করতে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা প্রয়োজন। দরিদ্র হকার সুলতানের পক্ষে এত টাকা জমা করে অপারেশন করা সম্ভব নয়। কিন্তু খুব শ্রীঘ্রই টিউমারটি অপারেশন করা দরকার।

তিনি বলেন, লোকলজ্জার কারণে কারও কাছে কিছু বলতে ও হাত পাততে পারছিনা। তবু নিরুপায় আমি। ঘাড়ের টিউমারটি অপারেশনের জন্য সমাজের ধনাঢ্য ব্যক্তিসহ সকলের সাহায্য সহযোগিতা চাই।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন