মোঃ রাসেল সবুজ >

আরাফাত সানির পর এবার বাংলাদেশের দ্রুতগতির পেসার তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশনও অবৈধ ঘোষণা করছে আইসিসি।আইসিসি তাদের ওয়েবসাইটে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এতে জানা‌‌‌না হয়েছে, পরীক্ষায় তাসকিন ও সানির বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি খুঁজে পাওয়া গেছে।আবার পরীক্ষা দিয়ে নিজেদের অ্যাকশন বৈধ প্রমাণিত না করা পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ থাকবেন এই দুই ক্রিকেটার।
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে হল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে আরাফাত সানির সঙ্গে তাসকিনের অ্যাকশন নিয়েও সন্দেহ তোলেন আম্পায়াররা।পরে গত ১৫ মার্চ বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিকের সঙ্গে চেন্নাইয়ে গিয়ে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন তাসকিন।এর দুদিন আগে পরীক্ষা দেন সানিও।
ওই পরীক্ষার পর এ দুজনের বোলিং অ্যাকশন ত্রুটিপূর্ণ বলে জানায় আইসিসি।সংস্থাটির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, আরাফাত সানির বেশকিছু ডেলিভারির সময় তার কনুই ১৫ ডিগ্রির বেশি বাঁকা হয়ে যাচ্ছিল। আর তাসকিনের ব্যাপারে বলা হয়েছে, তারও বেশ কিছু ডেলিভারি বৈধতার সীমা অতিক্রম করেছে।
ইতিমধ্যে সানির জায়গায় দলে ঢুকতে আজ রাতেই বেঙ্গালুরু যাচ্ছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার সাকলাইন সজিব।বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আরাফাত সানিকে আইসিসি সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করেছে।তবে তারা এখনও মেইলের মাধ্যমে বিষয়টি আমাদের জানায়নি।তারা জানানোর পর আমরা বিকল্প খেলোয়াড়ের ব্যাপারে উদ্যোগ নেব।’ অন্যদিকে বিসিবি সূত্রের খবর তাসকিন নিষিদ্ধ হওয়ায় তার বদলে দলে যোগ দিতে যাচ্ছেন শুভাগত হোম।
নিয়ম অনুযায়ী এই দুজন এখন তাদের বোলিং অ্যাকশন শুধরানোর কাজ করবেন।এরপর ফের তাদের আইসিসি অনুমোদিত ল্যাবে পরীক্ষা দিতে হবে।পরীক্ষায় ফলাফল ইতিবাচক হলে তারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন।বোলিং অ্যাকশন শুধরানোর বিষয়ে আইসিসির কোনও সময়সীমা নেই।বোলিং অ্যাকশন শুদ্ধ করে কখন পরীক্ষা দিতে হবে, সে সিদ্ধান্ত নেবেন সানি-তাসকিন ও তাদের কোচ।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন