ঢাকা: লিওনেল মেসির জোড়া গোলে এস্পানিওলের বিপক্ষে ৪-১ গোলে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। কোপা দেল রে’র ষোলোর প্রথম লেগে এই জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল প্রায় নিশ্চিত হয়ে থাকল কাতালানদের। এস্পানিওল ম্যাচে বেশ ক’টি হলুদ কার্ড পেয়ে এক পর্যায়ে নয় জনের দলে পরিণত হয়। অবশ্য তার আগেই বার্সা ৩-১ গোলে এগিয়ে ছিল।

বার্সেলোনায় ১১ দিনের ব্যবধানে তৃতীয় ডার্বি হতে যাচ্ছে। এর আগে লিগের ম্যাচে গত শনিবার দুদল গোলশূন্য ড্র করে। আর কোপা দেল রে’র দ্বিতীয় লেগের খেলা অনুষ্ঠিত হবে আগামী বুধবার। সেদিক থেকে বছরের প্রথম লিগ ম্যাচ ড্রয়ের পর এটি যেন বার্সার জন্য প্রতিশোধের মিশনই ছিল। সেই মিশনে বড় জয় নিয়েই ঘরে ফিরল কাতালানরা।

ফিলিপ সাইসেডোর গোলে নয় মিনিটে এস্পানিওল শুরুতেই এগিয়ে যায়। ১৩ মিনিটে মেসি সমতা ফেরান। প্রথমার্ধেই ২৫ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রিকিক থেকে গোল করে বার্সাকে এগিয়ে নেন এই আর্জেন্টাইন তারকা। ইনজুরি কাটিয়ে ফেরার পর মেসি ১৪ ম্যাচে করলেন ২১ গোল।

বার্সা দ্বিতীয়ার্ধে আরো দুই গোল করে। ৪৯ মিনিটে জেরার্ড পিকে বার্সার হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন। আর দুই মিনিট বাকি থাকতেই দুর্দান্ত এক ভলি শটে ব্যবধান ৪-১ করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে আর্দা তুরান ও অ্যালেক্সিস ভিদাল বার্সেলোনায় যোগ দেয়ার ছয় মাসের ব্যবধানে খেললেন প্রথম ম্যাচ।
barcavsespaniyol2
ম্যাচে ছিল হলুদ কার্ডের ছড়াছড়ি। ৭২ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ থেকে বেরিযে যান হেমান পেরেজ। তিন মিনিটের ব্যবধানে একইভাবে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় এস্পানিওলের আরেক খেলোয়াড় দিয়পকে। দলটি নয় হলুদ কার্ড পায়। হলুদ কার্ড দেখানো হয়েছে বার্সার আক্রমণভাগের ত্রয়ী মেসি, নেইমার ও সুয়ারেজকেও।

 

আগের খবর

>>> এসপানিওলের বিপক্ষে ভাগ্য বদলের চেষ্টা বার্সেলোনার

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন