ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি > পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন লিমিটেডের (বিটিসিএল ) ভান্ডারিয়া এক্সচেঞ্জ যান্ত্রিক ত্রুটি আর নানা সংকটে পড়ে টেলিফোন গ্রাহকরা ভোগান্তিতে পড়েছেন। উপজেলার দুই শতাধিক টেলিফোন সংযোগ গত একমাস ধরে বিকল হয়ে পড়ায় গ্রাহকরা চরম বিড়ম্বনার শিকার হয়ে আসছেন।
স্খানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, গত এক মাস আগে ভা-ারিয়ার টেলিফোন এক্সচেঞ্জে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। এতে উপজেলার দুই শতাধিক গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। বিকল সংযোগ অধ্যবদি মেরামতের উদ্যোগ না নেওয়ায় সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দাপ্তরিক কাজ ব্যাহত হচ্ছে। ফলে টেলিফোন গ্রাহকরা প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হয়ে আসছেন।
উপজেলার টেলিফোন এক্সচেঞ্জ পরিচালনার জন্য তিন জন অপারেটর থাকার কথা থাকলেও তিনটি পদে কোন জনবল নেই। লাইনমান মো. শহিদ টেলিফোন অপারেটরের দায়িত্ব পালন করে আসছেন ।
জানাগেছে,টেলিফোন এক্সচেঞ্জের কমকাড ও টিনেট নষ্ট হওয়ার কারনে দীর্ঘদিন ধরে সংযোগ বিকল রয়েছে। এ উপজেলায় টেলিফোন গ্রাহক ছিল সাড়ে চারশত । যান্ত্রিক ত্রুটি আর গ্রাহক সেবার মান খারাপ হওয়ায় ২৫০জন গ্রাহক টেলিফোন লাইন বিচ্ছিন্ন করেছে। এখন মাত্র ২০ গ্রাহক টিকে আছে। নানা অব্যবস্থাপনা ও সংকটে পড়ে গ্রাহক ভোগান্তির কারনে অনেক গ্রাহক টেলিফোন চালাতে অনাগ্রহ দেখাচ্ছে।
এদিকে পৌর শহরে ড্রেন নির্মাণ করতে গিয়ে বিটিসিএল এর সংযোগ লাইন কাটা পড়েছে। ড্রেন নির্মানের সময় বিদুৎ ও বিটিসিএল কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয়হীনতার কারনে অধিকাংশ লাইন বিচ্ছিন্ন হয়েছে। শহরের উপজেলা জোমাদ্দার বাড়ী সড়কে ও সুপারি পট্টি ১০টি সংযোগ ড্রেন নির্মাণের কারনে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কবে নাগাদ এসকল সংযোগ পাওয়া যাবে তার নিশ্চয়তা দিতে পারছেনা কর্তৃপক্ষ । ফলে দিন দিন টেলিফোন গ্রাহ কমে যাচ্ছে।
লাইনম্যাম মো. শহীদ বলেন, আমি সরকারি কর্মচারী নই । মাষ্টার রোলে মাসিক এক হাজার ৫০০ টাকা বেতনে লাইনম্যানের বেতনে চাকুরী করি। আমি কি ভাবে একা টেলিফোন সেবা দেব ।
ভান্ডারিয়া পৌর শহরে ব্যবসায়ী শফিক কম্পিউটার সেন্টারের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, টেলিফোনে সেবাই তবু প্রতিমাসে নিয়মিত মাসিক বিল দিয়ে আসছি। সরকারি থেকে বিটিসিএল গেলে সেবা ভাল পাওয়া যাবে সেখান সেবা তো দুরে থাক খবর নেওয়ার মত জনবল নেই ।
ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহাদৎ হোসেন হাজরা জানান, রোজার মাস থেকে ফোনে সংযোগ পাচ্ছি না। কোথাও সরকারি প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারছি না।
এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া টেলিফোন এক্সচেঞ্জের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. ফারুখ হোসেন জানান, টেলিফোন এক্সচেঞ্জের কমকাড ও টিএনইটি নষ্ট হওয়ার কারনে দীর্ঘদিন ধরে সংযোগ বিকল রয়েছে। অতিদ্রুত বিকল সংযোগ সচলের চেষ্টা চলছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন