পিরোজপুর প্রতিনিধি > দুর্নীতি দমন (দুদক) কমিশনার ড. নাসিরউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভুদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে দুর্নীতি মুক্ত দেশ গড়তে হবে। আমলাতান্ত্রিক জটিলতা কমিয়ে জবাবদিহীতা মূলক প্রশাসনিক ব্যবস্থা কায়েমের মাধ্যেমে দুর্নীতি মুক্ত সমাজ গড়া সম্ভব। তিনি বলেন, সুশাসনকে আইনের মাধ্যমে সম্পর্ক স্থাপনে জনগনের সহায়তা প্রয়োজন, বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে, উন্নয়নের ক্ষেত্রে, দারিদ্র বিমোচনের ক্ষেত্রে এবং মানব উন্নয়নের যে সূচক দেশে সৃষ্টি হয়েছে তা প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে কোন অংশে কম নয়। এটি আমাদের একটি বড় অর্জন। কমিশনার আরো বলেন, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে দুর্নীতি কমিয়ে সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসার আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন পরবর্তীতে প্রতিটি ইউনিয়নে দুনীর্তি দমন কমিটি করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
আজ বুধবার পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে দুর্নীতি দমন কমিশনের উদ্যোগে এবং জাইকা, বাংলাদেশ’র সহযোগিতায় গণশুনানী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় দুদক কমিশনার এসব কথা বলেন।
তিনি এসময় আরও বলেন, আমাদের বড় সমস্যা হচ্ছে সুশাসন। এই সুশাসন কীভাবে আইনের মাধ্যমে সৃষ্টি করা যায় এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ ও দমন কার্যকরী রূপ নেয়া যায় সে লক্ষ্যে তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।

ভান্ডারিয়া উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মো. আবদুর রশীদ মাস্টারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন, পিরোজপুর জেলা প্রশাসক মো. খায়রুল আলম সেখ, দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক মো: মনিরুজ্জামান, ভাণ্ণ্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আতিকুল ইসলাম, , সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম মিলন প্রমুখ।
উপজেলার ভুমি অফিস, সেটেলমেন্ট অফিস,সাব রেজিষ্টার, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, ও স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসের কর্মকর্তারা এ গণশুণানীতে জনতার অভিযোগের মুখোমুখী উপস্থিতিতে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন