ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি 🔹

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. জামাল আকন (৪৫) নামে এক লম্পটকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায় গ্রেফতারকৃত জামাল উপজেলার জুনিয়া গ্রামের নবম শ্রেণি পড়ুয়া এক  ছাত্রীকে রবিবার (২৪ জুন) সকালে ভূক্তভোগি মাদ্রাসা ছাত্রী ঘরে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

পুলিশ জানায় গ্রেফতারকুত ধর্ষক জামাল ধর্ষণের কথা স্বঅকার করেছে।

সে উপজেলার তেলিখালী গ্রামের মৃত হাসেম আকনের ছেলে । সে দুই সন্তানের জনক । দুই সন্তানের জনক কর্তৃক ধর্ষনের স্বীকার হয়েছে।
থানা সুত্রে জানাগেছে,  উপজেলার তেলিখালী ইউনিয়নের জুনিয়া গ্রামের একটি মাদ্রাসার  ৯ম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে বসতঘরে একা পেয়েেএকই গ্রামের লম্পট জামাল আকন জোরপূর্বক ধর্ষন করে। মেয়েটির মা ঘরে এসে মেয়েকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে ডাক চিৎকার করলে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এলে জামাল আকন পালিয়ে যায়। এসময় মেয়েটির মা তার মেয়েকে স্থানীয় গন্যমানদের সহায়তার চিকিৎসার জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনা পুলিশ জানার পর ধর্ষক জামাল আকনকে গ্রেফতার করে।

এ ঘটনায় মেয়েটির মা  বাদী হয়ে ভান্ডারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পরে পুলিশ হাসপাতাল থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে মেডিকেল পরীক্ষা করার জন্য পিরোজপুর সির্ভিল সার্জন এর কার্যালয় নিয়ে যায়।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন