খালিদ আবু,পিরোজপুর >
দীর্ঘ ২৩ বছর পর পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন পেল। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম প্রেরিত এবং শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত এ অনুমোদিত কমিটি পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট এম এ হাকিম হাওলাদারের নিকট পৌছেছে।
নব গঠিত এই কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন এ.কে.এম.এ আউয়াল (এমপি) ও এ্যাডভোকেট এম এ হাকিম হাওলাদার। ৭১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটিতে ৮জন সহ-সভাপতি, ৩ জন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ৩ জন সাংগঠনিক সম্পাদকসহ অন্যান্য সম্পাদকীয় পদে রয়েছেন ২৬ জন। এছাড়া নির্বাহী সদস্য করা হয়েছে ৩৪ জনকে। এবারই প্রথম ৮ জন নারী এই কমিটিতে স্থান পেয়েছে। এর মধ্যে ১ জন সহ-সভাপতি, ১জন মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, ১জন উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছাড়াও ৫জন নির্বাহী সদস্য রয়েছেন। প্রবীন ও নবীনদের সমন্বয়ে গঠিত এ কমিটিতে নবীন নেতৃত্বের রয়েছে সংখ্যাগরিষ্টতা । প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট চন্ডীচরণ পাল, মুক্তিযুদ্ধে ৯নং সেক্টরের সাব সেক্টর কমান্ডার মেজর অবঃ জিয়াউদ্দিন আহম্মেদ সহ ৬জন প্রবীণ নেতাকে পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদে রাখা হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, পিরোজপুরে আওয়ামীলীগের সর্বশেষ কাউন্সিল হয় ১৯৯২ সালে। এরপর ১৯৯৬ সালে একটি অ্যাডহক কমিটি করা হয়, যার আহবায়ক ছিলেন অ্যাডভোকেট চন্ডি চরণ পাল। ২০০১র জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর জেলার ৩টি আসনের একটিও আওয়ামীলীগ না পাওয়ায় দল থেকে চন্ডিচরণ পাল পদত্যাগ করেন। ২০০৩ সালের কেন্দ্রীয় নির্দেশ মোতাবেক অ্যাডভোকেট শুধাংশ শেখরকে সভাপতি, অ্যাডভোকেট আকরাম হোসেনকে সহ সভাপতি ও অ্যাডভোকেট হাকিম হওলাদারকে ২নং সহ-সভাপতি এবং বর্তমান এমপি একে এম এ আউয়ালকে সাধারন সম্পাদক করে ৭১ সদস্যের একটি অ্যাডহক কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছিল। এরপর গত বছরের ১১ ডিসেম্বর পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হলেও এতদিন পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি। সভানেত্রীর অনুমোদনের মধ্য দিয়ে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে আসীন হলো।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম তার প্রেরিত চিঠিতে প্রধাণমন্ত্রীর পক্ষে আশা প্রকাশ করে বলেছেন এই কমিটির সকল কর্মকর্তা ও সদস্য নিষ্ঠার সঙ্গে স্ব স্ব দায়িত্ব পালন এবং সকলের সমবেত প্রচেষ্টায় পিরোজপুর জেলা কমিটি দলকে আরও সুদৃঢ় ও সুসংগঠিত শক্তিশালী সংগঠন হিসাবে গড়ে তুলতে সক্ষম হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্œের সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষ্যে ক্ষুধা-দারিদ্র-শোষন-বঞ্চনা ও দুর্নীতি মুক্ত একটি উন্নত সমৃদ্ধ আধুনিক সমাজ এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার সংগ্রামে জনগনকে সম্পৃক্ত করা এবং তাদেরকে সংগঠিত করতে এই কমিটি যথাযোগ্য ভুমিকার পালন করবে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন