পিরোজপুর প্রতিনিধি >>

‘খাদ্যে ভেজালকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যু দন্ড করা হোক’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে পিরোজপুরে নিরাপদ খাদ্যের জন্য প্রচারাভিযান বিষয়ক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার পিরোজপুর শেরেবাংলা পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে কমিউনিটি ডেভালপমেন্ট ফোরাম’র উদ্যোগে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা রয়েল বেঙ্গল ফাউন্ডেশান এর আয়োজনে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা সূচনা ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক নারী নেত্রী সালমা রহমান হেপি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল জলিল আকন।
বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা,ডাক দিয়ে যাই, সুচনা ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশন ও জননী ওয়েল ফেয়ার হাসপাতালের সহযোগিতায় দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের ১৪টি জেলা নিয়ে গঠিত প্রচারাভিযানে উপস্থিত থেকে মতামত ব্যাক্তকরেন, ডা দিয়ে যাই পিরোজপুরের সমন্বয়কারী উজ্জল দত্ত, রয়েল বেঙ্গল ফাউন্ডেশান এর নির্বাহী পরিচালক মাঈনুল আহসান মুন্না, সিনিয়র সাংবাদিক মনিরুজ্জামান নাসিম, মহিলা পরিষদের মাকুল খানম, সাংবাদিক হাসিবুল ইসলাম হাসান, মেহেদি হাসান, বাগের হাটের মজিবুর রহমান ও সেখ আসাদ, বরিশালের শুভঙ্কর চক্রবর্তী, ঝালকাঠীর খলিলুর রহমান,পটুয়াখালীর সৈয়দ সালাহ উদ্দিন বাবু ও সহিদুল ইসলাম ও যশোরের আব্দুল লতিফ, কৃষিবিদ জগৎপ্রিয় দাস বিশু এবং ব্যবসায়ী আফজাল হোসেন লাভলু প্রমুখ।
সিকদার চানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তারা আসন্ন রমজানের আগেই খাদ্যে ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে জোড়ালো পদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানান। সরকারের কাছে দাবী জানান ২০১৩ সালের খাদ্য আইন পরিবর্তন করে খাদ্যে ভেজালকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড করার দাবী জানান।
পরে সম্মতিক্রমে আন্দোলন পরিচালনার জন্য ১৪ জেলাকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ডাক দিয়ে যাই’র নির্বাহী পরিচালক শাহজাহান গাজী, সিনিয়র সহ সভাপতি সালমা রহমান হেপি, সাধারন সম্পাদক মাঈনুল আহসান মুন্না, কোষাধ্যক্ষ নাসির উদ্দিন আহমেদ, সদস্য শামীমা রানী. ব্রাকের এরিয়া ম্যানেজার, মেহেদী হাসান ও ১৪ জেলার একজন করে প্রতিনিধি।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন