দেবদাস মজুমদার >>
পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়া আসনের সংসদ সদস্য  ডা. রুস্তম আলী ফরাজী অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পাটিতে(এরশাদ) যোগদান করেছেন।  আজ শনিবার সকাল ১১টায় এমপি ডা. ফরাজি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচ এম এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এরশাদের প্রেসিডেন্ট পার্ক ভবনে নিজস্ব কার্যালয়ে এ  যোগদান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এমপি, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি ও সদ্য যোগদানকৃত এমপি ডা. রুস্তুম আলী ফরাজি ।  দলের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত থেকে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডা. ফরাজিকে বরণ করে নেন।
প্রসঙ্গত ডা. রুস্তম আলী ফরাজি ১৯৯৬ সালে জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরে তিনি জাতীয় পার্টি ছেড়ে  বিএনপিতে যোগদান করেন। ২০০১ সালে তিনি বিএনপি থেকে নির্বাচন করে পিরোজপুর-৩ এ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই স্থানীয় বিএনপির সঙ্গে দ্বন্দ্ব ও বিরোধের জের ধরে ফরাজী এক পর্যায়ে বিএনপিতে কোণঠাসা হয়ে পড়েন। তিনি সংস্কারপন্থী নেতা হিসেবেও বিতর্কিত হন দলে, ফলে ওই সময় তিনি বিএনপির মনোনয়ন লাভে ব্যার্থ হন।১৯৯৬ সালে জাতীয় পার্টি থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি লিডার জাতীয় নেতা মহিউদ্দীন আহমেদকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০১ সালেও তিনি পিরোজপুর-১ আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী হয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মাহমুদা সওগাতকে পরাজিত করেন। ২০০৯ সালের বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেন ডা. রুস্তম আলী ফরাজী। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন। বিএনপির মূল প্রার্থী তৃতীয় স্থান অধিকার করেন।

 ২০১৪ সালের নির্বাচনে পুনরায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. আনোয়ার হোসেনকে পরাজিত করেন।
ডা. ফরাজির নতুন করে জাতীয় পার্টিতে ফেরা নিয়ে মঠবাড়িয়া আসনে আগামী সংসদ নির্বাচনে ডা. রুস্তম আলী ফরাজি ইস্যুতে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন