কাউখালী প্রতিনিধি >
মহান ভাষা আন্দোলনে শহীদদের চেতনা সমুন্নত রাখতে পিরোজপুরের কাউখালীতে আব্দুস ছোবাহান স্মৃতি পাঠাগারের উদ্যোগে ভাষার মাস জুড়ে ভ্রাম্যমান একুশে বই মেলা আজ বুধবার থেকে শুরু হয়েছে।
উপজেলার আব্দুস ছোবাহান স্মৃতি পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সামাজিক উদ্যোক্তা ষাটোর্ধ্ব আবদুল লতিফ খসরু ৫০০ বই নিয়ে এই ভ্রাম্যমান বই মেলার আয়োজন করেছেন। আজ বুধবার ভাষার মাসের প্রথম দিনে সকাল ১০ টায় পাঠাগার চত্বরে মাসব্যাপী এই ভ্রাম্যমান বইমেলার উদ্বোধন করেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জেলা ইউনিট কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সমীর কুমার বাচ্চু।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব কামরুল হাসান পলাশ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন শুক্কুর, শাহ এমরান ফারুক, পাঠাগার সভাপতি আঃ লতিফ খসরু, আলমগীর হোসেন। এ বই মেলায় স্থান পেয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী, ভাষা সৈনিক আবদুল মতিনের সচিত্র প্রতিবেদন, কথা সাহিত্যিক হুমায়ুন আহম্মেদের লেখা উপন্যাস হিমু, পাঠাগার সভাপতি আঃ লতিফ খসরুর সম্পাদিত ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস ও ভাষা শহিদদের পরিচিতি সম্বলিত একুশের পান্ডুলিপি, সাইয়েদ তপু সম্পাদিত শহিদদের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি ও একুশের ছড়া, আফরোজা মুন্নির সম্পাদিত উপন্যাস ধূসর কন্যা, মো. শাহ আলমের সম্পাদনায় শেরে বাংলা এ.কে ফজলুল হক এর উপর লেখা বই, রীতা জেসমিন, নিয়াজ মাহমুদ ও লাভলু হকের সম্পাদনায় বই, বরিশালের ভাষা সৈনিক এ.কে.এম আজাহার উদ্দিনের উপর লেখা সমর্পন নামের বই, মোস্তাফিজ শফি ও তৌহিদুর রহমান এর সম্পাদনায় একাত্তরের বিজয়নী, হামিদুল হোসেন তারেক, বীর বিক্রম এর সম্পাদনায় মহান মুক্তিযুদ্ধের উপর লেখা কাউখালী ধানসিড়ির বাকের মুক্তিযুদ্ধ, এছাড়া শিশুদের জন্য ছড়ার বই, কবিতার বইসহ নানা ধরনের রম্য রচনা রয়েছে তার এ ভ্রাম্যমান বই মেলায়

উদ্যোক্তা আবদুল লতিফ খসরু বলেন, প্রতিদিন সকালে এ ভ্রাম্যমান বইমেলা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের জন্য নিয়ে যাওয়া হবে। আর একুশে ফেব্রুয়ারি উপজেলার শহীদ মিনারের পাদদেশে এ ভ্রাম্যমান বই মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।
তিনি আরো জানান ভাষা শহিদদের ইতিহাস, ভাষা সৈনিকদের জীবনী নতুন প্রজন্মকে জানাতে ও বই পড়ার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি করার লক্ষে এ বই মেলার আয়োজন করা হযেছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন