২০১৫ সালের শেষ চলচ্চিত্র হিসেবে স্থান পেতে যাচ্ছে সরকারি অনুদানের সিনেমা লাল চর। আগামী ২৫ ডিসেম্বর, সারা দেশে মুক্তি পাচ্ছে এ চলচ্চিত্রটি।

নির্মাতা সূত্রে এমনটাই জানা গেছে।

ইমদাদুল হক মিলনের ‘নদী উপাখ্যান’ উপন্যাস অবলম্বনে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন নাট্যাভিনেতা ও নির্মাতা নাদের চৌধুরী। এই সিনেমার মাধ্যমেই চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছেন নাদের চৌধুরী।

সিনেমাটির হংস মিথুন শিরোনামের গানটি ইউটিউবে প্রকাশের পরে বেশ সাড়া ফেলেছে। গত ৩ ডিসেম্বর গানটি ইউটিউবে প্রকাশের পরে ১ লাখবার দেখা হয়েছে গানটি। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের কথায়, ফরিদ আহম্মেদের সুরে এ গানে কণ্ঠ দিয়েছেন ডলি সায়ন্তী ও নকিব

সিনেমা প্রসঙ্গে নাদের চৌধুরী বলেন, ‘লাল চর চলচ্চিত্রটিই আমাকে চ্যালেঞ্জ নেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় আর আত্মবিশ্বাস জাগিয়েছে। শুধু দর্শকের পূর্ণ তৃপ্তি দিতেই লাল চর নির্মাণ করেছি। কারণ আমি মনে করি, দর্শকই চলচ্চিত্রের মূল উৎস। যে চলচ্চিত্র দর্শকই দেখবে না, সেই চলচ্চিত্র অস্কার পেলেই কী আর ঘরভর্তি পুরস্কার পেলেই কী! আমার প্রবল আত্মবিশ্বাস, লাল চর সব ধরনের দর্শক দেখবে, হাসবে, ভালোবাসবে এবং কাঁদবেও।’

সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন- আনিসুর রহমান মিলন ও সেরা নাচিয়ে প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন মীম। এ ছাড়া আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন- মাসুম আজিজ, ঝুনা চৌধুরী, সাবিহা আজিজ, শহীদুজ্জামান সেলিম, রফিকুল্লাহ সেলিম, কাজী শিলা নাদের চৌধুরীসহ মঞ্চের কয়েকজন তরুণশিল্পী। চলচ্চিত্রটির সংগীত পরিচালনা করেছেন ফরিদ আহমেদ।

চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি বিএফডিসির ভিআইপি ল্যাবে লালচরের মহরত অনুষ্ঠিত হয়। ১ ফেব্রুয়ারি মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে পদ্মার চর এলাকায় শুরু হয় শুটিং। গত ১৮ নভেম্বর, বিনাকর্তনে সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায় লাল চর।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন