মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার বলেশ্বর নদ তীরবর্তী বড়মাছুয়ার খেজুরবাড়িয়া গ্রামে পানি উন্নয়ন বেড়িবাধে সৃজিত সরকারী গাছ কেটে নিয়েছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই ও তার লোকজন। পরে করাত কলে ওই গাছ সাইজ করার সময় খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ কাটা গাছ জব্দ করে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, উপজেলার বলেশ্বর নদ তীরবর্তী বড়মাছুয়া ইউনিয়নের খেজুরবাড়িয়া গ্রামের পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাধের ওপর লাগানো বিশাল আকৃতির ১টি বাবলা ও ২টি আকাশমনি গাছ কেটে নেয় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই বিএনপি নেতা বশির উদ্দিন ও তার সহযোগি ডালিম খন্দকার । প্রকাশ্যে দিনে দুপুরে ৫/৭জন শ্রমিক নিয়ে গাছ কাটলেও কেউ বাঁধা দিতে সাহস পায়নি। পরে মঙ্গলবার বিকেলে থানা পুলিশ খবর পেয়ে বলেশ্বরের মোহনায় স্থানীয় ইউসুফ তালুকদারের স’মিলে প্রভাবশালীদের মজুদ করা ১৬পিচ গাছ জব্দ করেন।

তবে বড়মাছুয়া ইউপি চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা নাসির উদ্দিন সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, বলেশ্বর নদের মোহনায় পারাপারের খেয়া ঘাটে ওঠা নামার একটি সিঁড়ি নির্মাণের জন্য ওই গাছ কাটা হয়েছিল ।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. সরোয়ার শেখ সরকারী গাছ জব্দ করার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড পিরোজপুর এর নির্বাহী প্রকৌশলী সাইদ আহম্মেদ জানান, বেরিবাঁধের গাছ কাটার অভিযোগ পেয়েছি । এ ব্যাপারে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন