মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় হিন্দু পরিবারে দশম শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে(১৫) যৌণহয়রানির অভিযোগে মো. ইলিয়াস হাওলাদার(২৭)নামে এক বখাটে লম্পটকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাত নয়টার দিকে ওই বখাটে উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের নাপিতখালী গ্রামের হিন্দু ওই স্কুল ছাত্রীর বাড়িতে ঢুকে যৌণহয়রাণি চেষ্টার সময় এলাকাসির হাতে আটকের পর পুলিশ ওই লম্পটকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় হয়রাণির শিকার ওই স্কুল ছাত্রীর বিধবা মা বাদি হয়ে সোমবার দিবাগত রাতে মঠবাড়িয়া থানায় অভিযুক্ত লম্পটের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারকৃত বখাটে মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের ছোট হারজী গ্রামের মো. শাহজাহান হালাদারের ছেলে। সে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক।
ভূক্তভোগি মেয়েটি স্থানীয় একটি স্কুল এণ্ড কলেজে দশম শ্রেণীতে লেখা পড়া করছে।

থানা ও ভূক্তভোগি পরিবার সূত্রে জানাগেছে, গত ৩ মেয়ে ওই স্কুল ছাত্রী গ্রামের বার্ষিক কীর্তন অনুষ্ঠান দেখতে গেলে মিরুখালী ইউনিয়নের ছোট হারজী গ্রামের মো. শাহজাহান হালাদারের বখাটে ছেলে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল চালক মো. ইলিয়াস হাওলাদার নিজের মোবাইল ফোনে ওই স্কুল ছাত্রীর ছবি তোলে । এরপর বখাটে স্কুল ছাত্রীর ছবির পাশে বখাটে নিজের ছবি জুড়ে দিয়ে মেয়েটিকে নানাভাবে হয়রাণি শুরু করে। স্কুলে আসা যাওয়ার পথে বখাটে ইলিয়াস মেয়েটিকে কূপ্রস্তাব দেয় । না হলে ওই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়ে সামাজিকভাবে ক্ষতি করার হুমকী দিতে থাকে। এক পর্যায় সোমবার রাত নয়টার দিকে বখাটে ইলিয়াস মেয়েটির বসতবাড়ির পাশে ওত পেতে থাকে। এসময় ঘরের সামনে মেয়েটিকে একা পেয়ে তার শ্লীলতাহাণির চেষ্টা চালায় ওই বখাটে । মেয়েটির ডাক চিৎকারে পরিবারের লোকজন ও প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে বখাটে লম্পট ইলিয়াসকে আটক করে। পুলিশ খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল হতে বখাটে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশিচত করে জানান, বখাটে ইলিয়াসকে গ্রেফতার করে আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রী ম্যাজিষ্ট্রেটের নিকট ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন