পিরোজপুর প্রতিনিধি <>
পিরোজপুরের কাউখালীতে এক উজ্জল আকন নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে রিটন আকন, সাহেদ সরদার নামের দুই ব্যাক্তিকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার বিকালে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. শামসুল হক এ রায় প্রদান করেন। এ সময় আদালত তাদেরকে আরো ৫০ হাজার টাকার জরিমানার আদেশ প্রদান করেন। ফাঁসির দন্ডাদেশ প্রাপ্ত লিটন আকন কাউখালী উপজেলার বিড়ালঝুড়ি গ্রামের মোফাজ্জল হোসেন আকনের পুত্র এবং সাহেদ সরদার একই গ্রামের মৃত আইউব আলীর পুত্র।
বাদী পক্ষের সরকারী আইনজীবী পিপি খান মো. আলাউদ্দিন জানান, ২০১২ সালের ৮ জুলাই কাউখালী উপজেলার বিড়ালঝুড়ি গ্রামের মো. সহিদ আকনের অসুস্থ ছেলে উজ্জল আকনকে(১৫) তাস খেলার নাম করে আসামীরা সন্ধ্যা ৭টার দিকে আসামীরা কাউখালী বাজারে যাবার নাম করে ডেকে নিয়ে যায়। পরে আসামীরা উজ্জলের কাছে থাকা সাড়ে ১২ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়ার জন্য ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করে স্থানীয় একটি পান বড়ছে লাশ লুকিয়ে রাখে। পরে ঘটনার ৪ দিন পর ১২ জুলাই পুলিশ কাউখালী উপজেলার আসপর্দি গ্রামের সুনিল মন্ডলের পানের বড়জের বাগাল থেকে নিহত উজ্জল আকনের লাশ উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় নিহত উজ্জল আকনের পিতা সহিদ আকন বাদী হয়ে কাউখালী থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে বিচারক এ রায় প্রদান করেন।
পরে ১৬ জন সাক্ষ্যর সাক্ষির ভিত্তিতে একজন আসামীর উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন