মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি <>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পুলিশ সুপার গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট খেলাকে কেন্দ্র করে দুই দল সমর্থকের মাঝে  বিরোধের ঘটনায় স্থানীয় তুষখালী কলেজে ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এতে কলেজের নৈশ প্রহরীসহ উভয় পক্ষের ১৬ জন আহত হয়েছে বলে দুই পক্ষ দাবি করেছে। শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে সদ্য এমপিও ভূক্ত তুষখালী কলেজ ক্যাম্পাসে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আহত কলেজ নৈশ প্রহরী খায়রুলকে (২৮) আশংকজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অন্য আহতদের মধ্যে ইমরান ও রিফাত নামের দুই যুবক স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকি অন্য আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাতেই ছেড়ে দেওয়া হয়। পুলিশ এ হামলায় জড়িত সন্দেহে শনিবার সকালে মিলন মেম্বর নামের একজনকে আটক করেছে।

এদিকে কলেজে ভাংচুর ও নৈশ প্রহরীর ওপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষুব্দ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা আজ শনিবার সকালে মঠবাড়িয়া-চরখালী সড়ক অবরোধ করে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। এতে সড়কের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে মঠবাড়িয়া ও ভা-ারিয়া থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে অবরোধ সরিয়ে নেওয়া হয়।
অপরদিকে কলেজে হামলার প্রতিবাদে উপজেলার বড়মাছুয়া ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও বড়মাছুয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশে করেছে।

হাসপাতাল ও আহত সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে পুলিশ সুপার কাপ ফুটবল খেলা শেষে জেলা সদর থেকে মঠবাড়িয়া দলের সমর্থকরা গাড়িতে ফিরছিল। গাড়ি তুষখালী কলেজের সামনে পৌছাঁলে একদল অজ্ঞাত যুবক মোটরসাইকেল দিয়ে গাড়িটির পথরোধ করে। এসময় গাড়িতে থাকা মঠবাড়িয়া ফুটবল দলের সমর্থকেরা গাড়ি থেকে বের হয়ে আসলে দুই পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এসময় কলেজের সাইনবোর্ড, দরোজা জানালা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ হামলার সময় কলেজের নৈশ প্রহরীসহ উভয় পক্ষের ১৬ জন আহত হয়। পরে ঘামলায় আহত নৈশ প্রহরীকে উদ্ধার করে প্রথমে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে পরে তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থান্তর করা হয়।

কলেজ অধ্যক্ষ মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাতের আঁধারে এ হামলা দু:খজনক ও নিন্দনীয়। তিনি জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন।

মঠবাড়িয়া থানার (ওসি) আবু জাফর মো. মাসুদুজ্জামান বলেন, তুষখালী কলেজে রাতে হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করা হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন