ভাণ্ডারিয়া প্রতিনিধি <>
পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় বাঁধন বসু ( ১৭) নামে দশম শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ঘটনার দেড় মাস পরে আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে একই গ্রামের সপ্তম শ্রেণী পপড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর ঘরে ঢুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।
এ ঘটনায় ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রীর মা বাদি হয়ে আজ ঘটনার দেড় মাস পর আজ বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত স্কুলছাত্রের বিরুদ্ধে ভা-ারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
গ্রেফতারকৃত বাঁধন বসু উপজেলার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের গৌতম বসুর ছেলে। সে স্থানীয় ভিটাবাড়িয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১০ শ্রেণীতে লেখাপড়া করছে।
থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভাণ্ডারিয়ার ভিটাবাড়িয়া গ্রামের সপ্তম শ্রেণী পড়–য়া স্কুলছাত্রীর মা মেয়েটিকে বৃদ্ধ দাদুর কাছে বাড়িতে রেখে চিকিৎসার জন্য বরিশাল যান। ঘটনারদিন রাতে বৃদ্ধ দাদু ও স্কুলছাত্রী বাড়িতে ছিলেন। রাতে একই গ্রামের স্কুলছাত্র বাঁধন মেয়েটির ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরদিন মেয়েটির মা বাড়িতে আসলে এ ঘটনা মেয়েটি তাকে জানায়। পরে লোকলজ্জার ভয়ে স্কুল ছাত্রীর পরিবার বিষয়টি চেপে যান।
সম্প্রতি বিষযটি গ্রামে জানাজানি হলে ভূক্তভোগি স্কুলছাত্রীর মা বাদি হয়ে ঘটনার দেড় মাস পর আজ বৃহস্পতিবার ভাণ্ডারিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।
ভাণ্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ভূক্তভোগি স্কুলছাত্রীর মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত স্কুলছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন