পিরোজপুর প্রতিনিধি <>
পিরোজপুরে ছেলেধরা ও কল্লাকাটা গুজব রোধে জেলা পুলিশের আয়োজনে সচেতনতামূলক বণার্ঢ্য র‌্যালী ও সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পিরোজপুর সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি র‌্যালী শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান বলেন, আইন নিজের হাতে তুলে নেয়া একটি ফৌজদারী অপরাধ। তারপরেও যদি কারো সন্দেহ হয়, তবে সাথে সাথে নিকটস্থ থানায় জানাবেন অথবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জানালে পুলিশ এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিবে। কিন্তু কেউ যদি এই গুজবকে পুজি করে পিরোজপুরের শান্তি ও শৃঙ্খলা নষ্ট করার চেষ্টা করেন তার পরিনাম ভয়াবহ হবে । কোন মতেই বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাকে গুজব দিয়ে রোধ করা যাবে না । গুজবে কাউকে গনপিটুনী দিলে তার সংখ্যা ১ কিংবা ১০০ যাই হোক না কেন সবাইকেই আইনের আওতায় আনা হবে । সোশ্যাল মিডিয়াতে গুজব শেয়ার দিলে বা এ নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ালে তার জায়গা হবে জেলখানা । এসময় তিনি সবাইকে সচেতন ও গুজব প্রতিরোধে জেলা পুলিশকে তথ্য দেয়ার আহব্বান জানান ।
সভায় বক্তব্য রাখেন, পিরোজপুরের অতিরিক্তি পুলিশ সুপার ( প্রশাসন ) মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আহমদ মাঈনুল হাসান, মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক গৌতম নারায়ন চৌধুরী, জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক গোলাম মাওলা নকীব , পিরোজপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক এস এম তানভীর আহমেদ প্রমুখ । সভায় সভাপতিত্ব করেন পিরোজপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জসীম উদ্দীন মাঝি।
এসময় বক্তারা বলেন, পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে এটি একটি গুজব । কেউ যাতে এ গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে আইন নিজের হাতে তুলে না নেয় সে জন্য সকলকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান। সভা শেষে শিক্ষার্থীদের মাঝে লিফলেট বিতরন করেন পুলিশ সুপার ।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন