মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে(১২) যৌন নিপীড়ন ও বলাৎকারের অভিযোগে আলমগীর হোসেন (২৫) নামের গণ শিক্ষা কার্যক্রমের ধর্মীয় শিক্ষক কে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিনগত রাতে উপজেলার আলগী পাতাকাটা গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটককৃত শিক্ষক আলমগীর উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়নের পাতাকাটা গ্রামের মজিবর মৃধার ছেলে । সে ওই গ্রামে ইসলামী ফাউন্ডেশনের গণ শিক্ষা কার্যক্রমের মসজিদ ভিত্তিক ধর্মীয় শিক্ষক ও স্থানীয় একটি মসজিদে জুমার নামাজ ও তারাবীর নামাজ পড়ান।

যৌন নিপীড়নের শীকার নির্যাতীত শিক্ষার্থীর নানা শুক্রবার রাতে বাদি হয়ে আলমগীর হোসনের বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ এনে মঠবাড়িয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, গত ২৩ মে ইফতারের পর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্মীয় পড়ালেখার সময় ফুসলিয়ে মসজিদের পুকুর ঘাটে নিয়ে যায়। সেখানে জোর পূর্বক ওই শিক্ষার্থীকে বলাৎকার করে। পরে বাড়িতে গিয়ে ওই শিক্ষর্থী তার নানার কাছে শিক্ষক কর্তৃক এ অনৈতিক ঘটনার কথা জানায়। পরে তার নানা থানায় গিয়ে অভিযুক্ত ধর্মীয় শিক্ষকের অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত শিক্ষক আলমীর কে আটক করে ।

এঘটনায় মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আবদুল্লাহ জনান, নির্যাতিত শিক্ষার্থীর নানার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলার প্রস্ততি চলছে। আটককৃত আলমগীরকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন