মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মহাজোট সমর্থক ও সাপলেজা ইউনিয়ন আ.লীগ নেতা মজিবুর রহমান মুন্সীর বসত বাড়ির পুকুওে গভীর রাতে বিষ প্রয়োগ করে চাষকৃত মাছ নিধন করেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।
এতে প্রায় দেড় লাখ টাকার মাছের ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত মাছ চাষী আ.লীগ নেতা। বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) দিনগত গভীর রাতে ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মুন্সীর বুখইতলা বান্ধবপাড়া গ্রামের বসত ঘর সংলগ্ন পুকুরে এ বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটে।

সম্প্রতি নির্বাচনী সহিংসতায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হন মজিববর মুন্সী। সে ক্ষত শুকাতে না শুকাতেই পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ মারার ঘটনায় গোটা পরিবার এখন দিশেহারা। এ ঘটনায় এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
পারিবারিক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ ডিসেম্বর স্বতন্ত্র প্রার্থীর কয়েকজন সমর্থকের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মুজিবুর রহমান মুন্সী, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলাউদ্দিনসহ ৪ জন গুরুতর জখম হয়। আহত মজিবরসহ অন্যরা দীর্ঘ এক সপ্তাহ বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বুধবার বাড়িতে আসেন। পরিবারের লোকজন নিয়ে রাতে ঘুমিয়ে পড়লে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তার বসত ঘর সংলগ্ন ঘেরের পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে । পরে দুর্বত্তরা পুকুরের গলদা, রুই, কাতলাসহ অন্যান্য প্রজাতির মাছ লুট করে নেয়। কিছু মাছ পুকুরে থাকলেও তা সকালে ভেসে ওঠে।
গৃহকর্তার স্ত্রী নারগিস পারভীন জানান, গভীর রাতে টের পেলেও নিরাপত্তার কারনে ঘর থেকে বের হতে পারিনি। এতে প্রায় আমাদের দেড় লক্ষাধিক টাকার মাছের ক্ষতি হয়।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শওকত আনোয়ার জানান, পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন