মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়াএকক আসনে মহাজোট প্রার্থী ও আ’লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে দিনভর দফায় দফায় সংঘর্ষেও ঘটনা ঘটেছে । এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এঘটনার জের ধরে মহাজোট প্রার্থীর সমর্থকরা উপজেলার পৌর শহরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে হামলা চালিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রায় ২০টি নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে। এছাড়া গুলিসাখালী ইউনিয়ন বাজারে মহাজোট প্রার্থীর একটি অফিসে হামলা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

প্রতক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, বুধবার সকালে উপজেলা ধানীসাফ ইউনিয়নের বুড়িরচড় গ্রামের তুষখালী লঞ্চঘাট চৌররাস্তা মোড়ে স্বতন্ত্র আপেল প্রতীকের ২০/২৫ জনের সমর্থক একটি দল লোহার রড, জিআই পাইপ নিয়ে মহাজোট প্রার্থী ডা. রুস্তম আলী ফরাজীর সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। এতে রাজু মোল্লা (২৮), রুবেল (২৪), ফিলিপ তালুকদার (৩৫), শহিদুল (৩৩), মহারাজ তালুকদার (৪০) লিটন (৩৬), রিয়াজ (৩০) ও মামুন (৩৫) কে আহত করে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর রাজু মোল্লা, ফিলিপ, মামুন ও রিয়াজকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেওে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। মহাজোট প্রার্থীর সমর্থকরা আহত হওয়ার খবর পৌর শহর ও ১১ ইউনিয়নে ছড়িয়ে পরলে মহাজোটের প্রার্থীর সমর্থকরা দেশীয় অ¯্র নিয়ে বিভিন্ন স্থানে পাল্টা হামলা চালিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী আপেল প্রতীকের প্রায় ২০টি নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে এবং ১০জন সমর্থককে আহত হয়। আহতরা হলেন, ফারুক (৬০), মোতালেব (৫০), বেল্লাল (৩২) ও সৌরভ (২৫) আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলেও বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। মহাজোট প্রার্থীর বিক্ষুব্ধ কর্মীরা ধানীসাফার স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী মঞ্চসহ শহরের বহেরা তলা, মিরুখালী, গুলিশাখালী, দাউদখালী, টিকিকাটা, বেতমোর রাজপাড়াসহ বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে। অপরদিকে আজ বুধবার সন্ধ্যায় গুলিসাখালী ইউনিয়ন বাজারে ১৫/২০জন স্বতন্ত্র সমর্থক মহাজোট প্রার্থীর একটি নির্বাচনী কার্যালয়ে ভাংচুর করে। এতে লাঙল প্রতীকের সমর্থক মোতালেব তালুকদার(৫৬) ও ইউনিয়ন আ.লীগ সহ সভাপতি ফকরুল ইসলাম তালুকদা(৫০) আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত মোতালেব তালুকদারকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।
এ বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অশরাফুর রহমান বলেন, পার্শ্ববর্তী ভান্ডারিয়য়া উপজেলার তেলিখালীর ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে তার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর এবং তার শতাধিক নেতাকর্মীকে আহত করেছে বলে দাবি করেছেন।

মঠবাড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোস্তফা স্বপন বলেন, বিভিন্ন স্থানে দুই পক্ষেরে সংঘর্ষের ঘটনায় চার জনকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, সকল প্রকার নির্বাচনী সহিংসতা এরাতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতদায়েন করা হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন