পিরোজপুর প্রতিনিধি >>
পিরোজপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) রামানন্দ পালের বাসায় ঢুকে তার স্ত্রী অদিতি বড়ালকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) রাত ৮ টার দিকে পিরোজপুরে জেলা প্রশাসনের ডরমেটরি ভবনে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহত অবস্থায় অদিতি বড়ালকে পিরোজপুরের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
অদিতি বড়াল বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কালিদাস বড়াল ও মহিলা সংসদ সদস্য হ্যাপি বড়ালের কন্যা। এর আগে রামানন্দ পাল বেতাগী উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিসেবে থাকাকালে ৩ জুলাই তাকে আরো একবার ছুরিকাঘাত করা হয়।
সহকারী কমিশনার (ভূমি) রামানন্দ পাল জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি ও তার স্ত্রী ঘুরতে বেরিয়ে ছিলেন। এরপর স্ত্রীকে বাসায় রেখে তিনি জেলা প্রশাসকের বাসভবনে যান। কিছু সময় পর তিনি জানতে পারেন তার স্ত্রীকে ছুড়িকাঘাত করা হয়েছে। খবর শুনেই তিনি পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন। ঘটনার সময় বাসায় তার স্ত্রী ও গৃহকর্মী বন্যা ছিল।
প্রত্যক্ষদর্শী বন্যা জানান, শ্যাম বর্নের নীল শার্ট পরিহিত এক যুবক কলিং বেল চেপে জানায় সে অফিস থেকে এসেছে। দরজা খোলার সাথে সাথে ভিতরে ঢুকে অদিতি বড়ালকে অতর্কিত ছুড়িকাঘাত করে। এসময় গৃহকর্মীকেও ছুড়িকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় হুমকি দিতে থাকে বেশি বাড়াবাড়ি করলে তোদের দেখে নেব।
হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার শাকিল সরোয়ার বলেন, অদিতি বড়ালের পেটের নিচের অংশে ও হাতে ছুড়ি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন।
ঘটনাস্থল থেকে পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এস. এম জিয়াউল হক বলেন, তাকে পুলিশী নিরাপত্তায় রাখা হয়েছে। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আবু আলী মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, ঘটনাটি জানার সাথে সাথে আমরা হাসপাতলে অবস্থান করছি। তার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশ বিভাগকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, আহত আদিতি বড়ালের বাবাও দুর্বৃত্তের গুলিতে মারা গেছেন। তার বাবার মৃত্যুর পরে বিচার চাইতে গিয়ে তাদের পরিবার একাধিকবার দুর্বৃত্তদের রোষানলে পড়েন। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর তার পিত্রালয় বাগেরহাটের চিতলমারীর বাসায় ঘুমন্ত অবস্থায় জানালা দিয়ে কুপিয়ে তাকে গুরুতর জখম করে। এর থেকে ধারনা করা হচ্ছে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাগেরহাট থেকে কোন সন্ত্রাসী এসে এ ঘটনা ঘটাতে পারে।

 

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন