পিরোজপুর প্রতিনিধি 🔹
পিরোজপুরের নাজিরপুরে প্রাথমিক শিক্ষকদের পদোন্নতির তালিকা তৈরীতে অনিয়মের অভিযোগে ২ শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ৮৫ নং দক্ষিন জয়পুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মিলি শিকদার বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার জেলা জজ আদালতে এ মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ডিপিইও) ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে (টিইও) আসামী করা হয়েছে। মামলার নথী ও বাদীর দেয়া তথ্য সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রনালয় শিক্ষকদের জেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করে প্রধান শিক্ষকের পদোন্নতি দেয়ার জন্য গ্রেডেশন তালিকা তৈরী করেন। ওই তালিকায় অভিযোগকারী মিলি শিকদারের নাম ৬৭ নং ক্রমিক নম্বরে ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদ পুরনে প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রনালয়ে ওই তালিকা প্রেরন কালে অভিযুক্ত ওই ২ কর্মকর্তা তার ( মিলি শিকদার) নাম অর্ন্তভুক্ত না করে প্রেরন করেন। পরবর্তীতে মন্ত্রনালয় থেকে প্রকাশিত প্রধান শিক্ষকের পদোন্নতি গ্রেডেশন তালিকায় মিলি শিকদারের নাম উঠে নি। ২০০৬ সালে সহকারী শিক্ষক হিসাবে চাকুরী নেয়া এ শিক্ষক আরো অভিযোগ করেন জানান, কে বা কারা তার নামে পদোন্নতি না নেয়া মর্মে তার ভুয়া স্বাক্ষরিত একটি আবেদন অফিসে জমা দেন। ভুক্তভোগী শিক্ষক দাবী করেন তিনি বরং পদোন্নতির জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদনও করেছেন। এ বিষয়ে সদ্য যোগদেয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিকদার আতিকুর রহমান জুয়েল জানান, ওই শিক্ষকের নাম গ্রেডেশনের তালিকায় আছে। তার নামে পদোন্নতি নিতে অনিচ্ছুক মর্মে একটি আবেদন থাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। পরে তার দেয়া পদোন্নতির একটি আবেদন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে প্রেরন করা হয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন