পিরোজপুর প্রতিনিধি 🔹

পিরোজপুরের নাজিরপুরে বিবাদমান জমির ঘর ভেঙ্গে নদীতে ফেলে সেখানে কলাগাছ রোপন করে দেয়া সহ ঘরের মালামাল লুট করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শেখমাটিয়া ইউনিয়নের ষোলশত গ্রামের বাবুর চরে। ওই জমিতে থাকা ভুক্তভোগী খায়রুল শেখ জানান, তার নামে বরাদ্দকৃত ওই জমিতে গত প্রায় ৭/৮ বছর ধরে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বসবাস করে আসছেন তিনি। কিন্তু গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টায় স্থানীয় রোকনুজ্জামান শেখের এর নির্দেশে স্থানীয় মোসলেম শেখ, নুরালী দড়ানী , কেরামত আলী ও বাশার শেখের নেতৃত্বে ৩০/৩৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় ওই ঘরে থাকা তার স্ত্রী নাজমা বেগমকে মারধর করা সহ ৫ ও ১ বছর বয়সের শিশু পুত্র শামিম শেখ ও আমিনুল শেখকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে ঘর থেকে বের করে দেয় ও ঘর ভেঙ্গে পাশর্^বর্তী নদীতে ফেলে দেয়। এ সময় ওই ঘরে থাকা প্রায় অর্ধশত মন ধান, ৮ মন চাল, নগদ ৩০ হাজার টাকা ও ঘরের অন্যান্য মালামাল লুট করে নেয় সন্ত্রাসীরা। পরে ওই একই দিন সন্ত্রাসীরা ওই বসত ভিটার উপর কলার চারা রোপন করে দেয়। এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের একজন কেরামত আলীর সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি এমন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন তারা এ কাজের সাথে জড়িত নন।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন