মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুর মঠবাড়িয়ায় পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মিজানুর রহমান সরদার (৩৫) নামে এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি নিহত মিজানুর তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী। ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছয়জন পুলিশ সদস্য আহত হয়ছেন। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় অস্ত্র ,ইয়াবা ও গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ।
রোববার দিনগত রাত পৌনে দুইটার দিকে উপজেলার বড়মাছুয়া বাজার সংলগ্ন আমজাদ হাওলাদারের বাগানে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত মিজানুর রহমান উপজেলার খায়ের ঘটিচোরা গ্রামের লাল মিয়া ওরফে লালু সরদারের ছেলে।

পুলিশ জানায়, পুলিশ জানায়, রবিবার দিবাগত রাতে পুলিশ মাদককারবারি মিজানুরকে গ্রেফতার করে । পরে তার কথিত মতে মঠবাড়িয়া উপজেলার বড়মাছুয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়ি এলাকায় মাদক উদ্ধার অভিযানে নামেন থানা-পুলিশের একটি দল ।  রাত পৌনে দুইটার দিকে পুলিশ গ্রেফতারকৃত মিজানুরকে সঙ্গে নিয়ে  ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর ওৎ পেতে থাকা একদল মাদক কারবারি ও দুর্বৃত্ত  পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। দুই পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক কারবারি মিজানুর রহমান গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে নিহত হন। এ সময় মঠবাড়িয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাজহারুল আমিন, উপপরিদর্শক নজরুল ইসলাম, তসলিমুর রহমান ও নূর আমিন, সহকারী উপপরিদর্শক ইয়ার আলী ও আবুল হাসান আহত হন। থানার পরিদর্শক মাজহারুল আমিনের বাঁ হাতে গুলি বিদ্ধ হয়। ঘটনাস্থল থেকে দেড় কেজি গাঁজা, ৫৫ পিস ইয়াবা ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ গুলিবিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী মিজানকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত পুলিশ সদস্যদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত  মোহাম্মদ মাজহারুল আমীন বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, নিহত মিজানুর একজন তালিকাভূক্ত মাদক কারবারি । তার বিরুদ্ধে মাদক,ডাকাতিসহ নানা দস্য্যুতার অভিযোগে মঠবাড়িয়া ও বরগুনায় সাতটি মামলা রয়েছে।

 

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন