মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মনজিলা খাতুনকে (১৫) নামে দশম শ্রেণি পড়–য়া এক স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে কনের মা, বরের বাবা ও বরকে জরিমানার দন্ডাদেশ দিয়ছে ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহস্পতিবার রাতে মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্্েরটট ও ইউএনও জি.এম সরফরাজ ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এ দন্ডাদেশ দেন। দন্ডিতরা হলেন কনের মা হোসনে আরা বেগম, বরের বাবা জয়নাল হাওলাদার ও বর মো.ইউনুচ হাওলাদার (২৮) কে জরিমানা জরিমানার দন্ডাদেশ দেওয়া হয়। এতে অভিযুক্ত তিনজনের প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা কওে আদালত। সেই সাথে সস্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ের আয়োজন পন্ড করে দেওয়া হয়।

স্কুল ছাত্রী মনজিলা উপজেলার উত্তর মিঠাখালী গ্রামের মৃত হারুন অর রশিদের মেয়ে ও বর মো.ইউনুচ হাওলাদার একই গ্রামের জয়নাল হাওলাদারের ছেলে।

মঠবাড়িয়া থানার এসআই নুর আমীন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার উত্তর মিঠখালী গ্রামের স্কুল ছাত্রীর বাড়িতে বর ও কনের উভয় পক্ষ বিয়ের আয়োজন করে। স্কুল ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ের আয়োজনের বিষয়ে গোপন সংবাদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। তে বাল্য বিয়ে পন্ড হয়ে যায়। এসময় অভিযুক্ত বর,বরের বাবা , কনের মাকে আটক করে পুলিশ ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করে। উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিএম সরফরাজ বরের বাবা, বর ও কনের মাকে অর্থ দন্ড দেওয়া হয়।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন