মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আরিফ হোসেন হাওলাদার(১৮) নামে এক যুবকে হত্যা করেছে অজ্ঞাত যুবকরা। পরে লাশ খালে ভাসিয়ে দেয় হত্যাকারীরা। আজ বুধবার সকালে উপজেলার পশ্চিম বড়শৌলা গ্রামের তেতুলবাড়িয়া খালের বাধের পার থেকে নিহত ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ।

গত শনিবার পহেলা বৈশাখের দিন বিকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে সে আর বাড়ি ফেরেনি।। এসময় লাশের পায়ে রশি বাধাসহ মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। পুলিশ ও গ্রামবাসির ধারনা পূর্বশত্রুতার জের ধরে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা ওই যুবককে হত্যার পর লাশ খালের বাধের পারে ফেলে দেয়।
নিহত ওই যুবক ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন। সে উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের বাঁশবুনীয়া গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের বড় ছেলে।

থানা ও গ্রামবাসি সূত্রে জানাগেছে, আজ বুধবার সকালে গ্রামবাসি উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের পশ্চিম বড়শৌলা লতিফ মেম্বর বাড়ির সম্মূখ তেতুলবাড়িয়া খালের বাধের পারে লাশ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। পুলিশ আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থল হতে অজ্ঞাত হিসেবে ওই যুবকের দুই পা বাধা লাশ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণ শ্রমিক আনোয়ার হোসেন ও তার স্ত্রী ফরিদা বেগম ওই যুবকের লাশ তাদের চারদিন ধরে নিখোঁজ বড় ছেলে আরিফ হোসেনের বলে সনাক্ত করে।
নিহতর পরিবার জানায়, গত শনিবার পহেলা বৈশাখে বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে আরিফ বাড়ি থেকে বের হয়ে স্থানীয় মুসল্লী বাড়ি বাজারের দিকে যায়। এরপর আর সে বাড়িতে ফেরেনি। ছেলেকে খুঁজে না পেয়ে আরিফের বাবা ছেলে নিখোঁজের বিষয়ে মঙ্গলবার মঠবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গোলাম ছরোয়ার লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই যুবককে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলেই প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠানো হচ্ছে। লাশের পায়ে রশি ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের আলামত রয়েছে।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন