মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি >>

বন দস্যুদের হাতে আপহৃত পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার তিন জেলে মুক্তিপণের টাকা পরিশোধ করে অবশেষে ফিরে এসেছে। গত ৪ মার্চ রাতে বলেশ্বর নদে মাছ ধরতে গেলে একদল বনদস্যু তিন জেলেকে নদী বক্ষ হতে অপহরণ কর গহীন বনে আটকে রাখে। পওে অপহৃত তিন জেলের পরিবার বনদস্যুদের নগদ টাকা, চাল, ডাল ও বাজার দিয়ে ছাড়া পেয়েছে। উদ্ধার হওয়া জেলেরা হলেন উপজেলার দক্ষিণ খেতাচিড়া গ্রামের ইয়াকুব কাজীর পুত্র ইউনুচ (৩৫), আকুব আলী কাজীর পুত্র নিজাম (২৫) ও নুর ইসলাম হাওলাদারের পুত্র রেজাউল (২২) ে

মঙ্গলবার বিকালে জেলে নিজাম ও রেজাউল মুক্তি পেয়ে বাড়িতে ফেরে। অপর দিকের্ সোমবার রাতে অপহৃত অপর জেলে ইউনুসকে স্বজনরা মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়িয়ে আনে।

ভূক্তভোগি জেলে ও তার স্বজনরা ভয়ে মুক্তিপণের বিষয়ে মুখ না খুলছেনা। তবে স্থানীয় ইউপি সদস্য আফজাল বেপারী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান- বলেশ্বর থেকে তিন জেলেকে অপহরণের পর সুন্দরবনের গভীর অরণ্যে নিয়ে গাছের সাথে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে বনদস্যুরা। এরপর প্রতি জেলে বাবদ ৪০ হাজার টাকা করে দু’দফায় স্বজনরা মোট ১ লাখ ২০ হাজার টাকা ও চাল, ডালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় বাজার পরিশোধ করার পরে বনের চরখালী নামক স্থানে জেলেদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মাজহারুল আমিন (বিপিএম) জানান, মুক্তিপণের টাকা ও নিত্য ব্যবহার্য বাজার দিয়ে জেলেরা ছাড়া পেলেও তাদের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে না। এছাড়া ঘটনাটি এ থানার আওতায় না হওয়ায় কোন ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, গত ৪ মার্চ রোববার রাতে স্থানীয় দক্ষিণ খেতাছিড়া গ্রাম থেকে ৭/৮জনের জেলে দল ৩টি নৌকায় করে বলেশ্বরের মাঝের চরের পশ্চিম দিকে মাছ ধরতে যায়। গভীর রাতে বনদস্যুরা নৌকায় হানা দেয়। এসময় জেলে ফারুকসহ ৩/৪ নদীতে লাফিয়ে রক্ষা পেলেও উপজেলার দক্ষিণ খেতাচিড়া গ্রামের ইউনুচ , নিজাম ও রেজাউল কে মুক্তিপনের জন্য অপহরণ করে নিয়ে যায় ।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন