Exif_JPEG_420
মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি▶️

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আবদুস সাত্তার পঞ্চায়েত (৭০) নামে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যকে পিটিয়ে যখম করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়ছে।
প্রতিপক্ষের হামলায় আহত সাত্তার পঞ্চায়েতের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান পিন্টু বাদি হয়ে ৩জনকে আসামী কওে আজ বুধবার মঠবাড়িয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।
সাত্তার পঞ্চায়েত উপজেলার সূর্যমনি গ্রামের মৃত.আঃ সামাদ পঞ্চায়েতের ছেলে।

মামলায় অভিযুক্ত আসামীরা হল, উপজেলার সূর্যমণি গ্রামের মৃত.মহসিন আলীর হাওলাদারের ছেলে রাজ্জাক হাওলাদার (৫০) ও তার দুই ছেলে হিরণ মিয়া (৩০) এবং রুবেল মিয়া (২২)।
মামলা সূত্রে জানাগেছে, সূর্যমণি গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য সাত্তার পঞ্চায়েতের সাথে প্রতিপক্ষ রাজ্জাক হাওলাদারেরর দীর্ঘদিনের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। কয়েকক মাস পূর্বে সত্তার পঞ্চায়েতের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান পিন্টু প্রতিপক্ষ রাজ্জাক হাওলাদারের বিরুদ্ধে ৭ ধারায় আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় রাজ্জাক আদালত অবমাননা করলে নির্বাহী আদালত রাজ্জাককে ১২ ঘন্টার সাজা দেন। এঘটনায় প্রতিপক্ষ রাজ্জাক ক্ষিপ্ত হন। গত রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে সাত্তার পঞ্চায়েত মঠবাড়িয়া পৌর শহরে আসার পথে স্থানীয় মাদ্রাসার কাছে পৌঁছলে ওঁৎপেতে থাকা রাজ্জাক হাওলাদার ও তার দুই ছেলে মিলে তার ওপর হামলা চালায়।হামলাকারীদের লাঠির আঘাতে তার হাতের আগুল ভেঙে যায়। এসময় তার সাথে থাকা ২৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে বলে বাদি মামলায় অভিযোগ আনেন। তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে আহত সেনা সদস্যকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান ।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম তারিকুল ইসলাম মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন